চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গুগলের স্বীকারোক্তি: ব্যবহারকারীদের জিমেইল ঘাঁটছে শত শত অ্যাপ

অন্তত কয়েকশ অ্যাপ জিমেইল ব্যবহারকারীর ইনবক্স স্ক্যান এবং এখান থেকে পাওয়া তথ্য তৃতীয় কাউকে প্রদান করতে পারে বলে তথ্য প্রকাশ করেছে গুগল।

মার্কিন আইনপ্রণেতাদের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে গুগল জানায়, তৃতীয়পক্ষ হিসেবে অ্যাপ ডেভেলপাররা ব্যবহারকারীর জিমেইল একাউন্টে প্রবেশ করে তথ্য নিয়ে থাকতে পারে।

অথচ গ্রাহকের জিমেইল স্ক্যান করার প্রবণতা থেকে গত বছর নিজেই সরে আসার কথা জানিয়েছিলো গুগল। এখন গুগলের দাবি, যথেষ্ট বিচার-বিবেচনা করেই তৃতীয়পক্ষকে এই সুযোগ দেয় তারা।

বিজ্ঞাপন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গুগলের হেড অব পলিসি সুসান মলিনারির লেখা চিঠিটি প্রথমে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের নজরে আসে। যেখানে সুসান জানান, ‘ডেভেলপাররা তৃতীয়পক্ষের কাছে তথ্য দিয়ে থাকতে পারে। তবে এর আগে অবশ্যই তাদেরকে ব্যবহারকারীদের কাছে স্বচ্ছ থাকতে হবে। তারা কিভাবে তথ্যের ব্যবহার করছে তা ব্যবহারকারীদের স্পষ্টভাবে জানাতে হবে।’

এর আগে জুলাইতে গুগলের নিরাপত্তা, বিশ্বাসযোগ্যতা ও গোপনীয়তা বিষয়ক পরিচালক সুজান ফ্রে এক ব্লগ পোস্টে জানান, জিমেইল ব্যবহারকারীদের আরও ভালো অভিজ্ঞতা দিতে গুগল তৃতীয় পক্ষের অ্যাপগুলোকে সুনির্দিষ্ট কিছু ক্ষেত্রে জিমেইলে প্রবেশের অনুমতি দেয়। তবে তাদেরকে গুগলের কয়েক ধাপ পর্যালোচনা প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। সংশ্লিষ্ট অ্যাপের গোপনীয়তার নীতি এবং আইনগত বৈধতাও খতিয়ে দেখা হয়। গুগলের আওতার বাইরের কোন অ্যাপ ব্যবহারকারীর তথ্যে প্রবেশাধিকার চাইলে সেটা যাচাই করে ব্যবহারকারীকে ওই অ্যাপের তথ্য সংগ্রহের উদ্দেশ্য-ধরন সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হয়।

তবে এই তৃতীয় পক্ষের অ্যাপ ডেভেলপাররা যে আরও কোনো পক্ষের কাছে ব্যবহারকারীর তথ্য দিচ্ছে তা কিন্তু জানাননি এই গুগল কর্মকর্তা।

বিজ্ঞাপন