চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গায়ে কেরোসিন ঢেলে এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা!

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে চিকিৎসার অভাবে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুনে পুড়ে আত্মহত্যা করেছে কমলা নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থী, এমনটাই দাবি করেছে তার পরিবার ও স্বজনরা। তবে পুলিশ এখনও মৃত্যুর কারণ সর্ম্পকে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছে না।

শনিবার দুপুরে উপজেলার দেওপাড়ার মলাজানি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সে সৌদি প্রবাসী নূরুল ইসলামের মেয়ে ও ধলাপাড়া চন্দন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী।

নিহতের স্বজনরা জানান, চার বোনের মাঝে কমলা ছিলো সবার ছোট। অন্য তিন বোনের বিয়ে হওয়ায় সে এবং তার মা বাড়িতে থাকতো। কমলা দীর্ঘদিন ধরে পেট ও হাতের ব্যথা জনিত রোগে ভুগছিলো। প্রায় সময়ই সে ব্যথার অসহ্য যন্ত্রনায় ছটফট করতো। অভাবী সংসার হওয়ায় সঠিকভাবে চিকিৎসাও করাতে পারেনি তার পরিবার। এদিকে প্রায় চার মাস ধরে প্রবাসী বাবার টাকাও পাঠানো বন্ধ। সেই সাথে বন্ধ হয়ে যায় তার নূন্যতম চিকিৎসা ও ওষুধ।

বিজ্ঞাপন

স্বজনরা আরও জানান, আজ দুপুরে তার মা ছাগল চড়াতে বাহিরে গেলে ফাঁকা বাড়ি পেয়ে ঘরের বারান্দায় শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় সে। পরে তার আত্মচিৎকারে প্রতিবেশীরা টিনের বেড়া কেটে বাড়িতে প্রবেশ করার আগেই সমস্ত শরীর আগুনে পুড়ে যায় তার। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় কমলার। খবর পেয়ে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। কমলার মরদেহ টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শফিকুল ইসলাম বলেন, মেয়েটি কী কারণে গায়ে কেরোসিন দিয়ে আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে তা সঠিক করে বলা যাচ্ছে না।  এবিষয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। অধিকতর তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

শেয়ার করুন: