চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গাছ লাগাতে গিয়ে মার খেলেন বন কর্মকর্তা

সরকারি বনভূমিতে গাছ লাগাতে গিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্যের ভাইয়ের হাতে বেধড়ক মারধরের শিকার হয়েছেন ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের এক বন কর্মকর্তা।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বরাতে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, তেলেঙ্গানা সরকারের বৃক্ষরোপণ অভিযানের অংশ হিসেবে ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসার (এফআরও) সি অনিতা রাজ্যের সিরপুর মণ্ডলের সারাসালা গ্রামে চারা গাছ লাগাতে যান।

বিজ্ঞাপন

গ্রামে একটি সরকারি সংরক্ষিত বনাঞ্চল দেখে সেখানে সঙ্গে থাকা বন বিভাগের আরও ২০ জন কর্মীর সাথে মিলে চারা গাছ রোপণ করতে থাকেন অনিতা।

ওই সময় কয়েকজন গ্রামবাসী এসে তাদেরকে সেখানে গাছ লাগাতে বাধা দেয় এবং সংরক্ষিত বনাঞ্চলকে নিজেদের মালিকানাধীন বলে দাবি করে।

এফআরও তাদের নিষেধ না মেনে গাছ লাগাতে থাকলে কয়েকজন গ্রামবাসী কাছাকাছি বসবাসকারী কনেরু কৃষ্ণ রাওকে ডেকে নিয়ে আসে। কনেরু কৃষ্ণ রাও তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির (টিআরএস) হয়ে সিরপুরে নির্বাচিত এমএলএ কনেরু কোনাপ্পার ভাই। তিনি নিজেও সম্প্রতি কোমারাম ভীম আসিফাবাদ জেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান।

বন বিভাগের কর্মীদের অভিযোগ, কৃষ্ণ রাও সমর্থকদের সঙ্গে লাঠিসোটা নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে সাথে সাথেই এফআরওসহ তাদের সবার ওপর হামলা করতে শুরু করেন।

বিজ্ঞাপন

অনিতা হামলা থেকে বাঁচতে দৌড়ে কাছের একটি ট্রাক্টরে উঠে পড়ার চেষ্টা করলে কৃষ্ণ রাও নিজেই তার পিছু পিছু দৌড়ে গিয়ে লাঠি দিয়ে তাকে আঘাত করতে থাকেন। ওই সময় টানা বেশ কয়েকবার তিনি লাঠি দিয়ে এফআরও অনিতার মাথায় আঘাত করেন।

কর্মকর্তাদের একজন অভিযোগ করে বলেন, ‘বনকর্মীরা কেন ওখানে গিয়েছিল তা একবারও জিজ্ঞেস না করে গ্রামবাসী এবং কৃষ্ণ রাও আমাদের কর্মীদের ওপর বর্বর হামলা শুরু করেন। এফআরও যে একজন নারী, সেটি পর্যন্ত বিবেচনা করে লাঠি এবং রড নিয়ে লোকজন তাকে ঘিরে ফেলে মারতে থাকে।’

‘কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বনভূমিতে গাছের চারা লাগাতে গিয়েছিলেন। এটি সরকারি জমি,’ বলেন তিনি।

এ ঘটনার একটি ভিডিওচিত্র প্রকাশ করেছে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

Bellow Post-Green View