চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গণপিটুনির বিরুদ্ধে মানববন্ধন

টাঙ্গাইলের দরিদ্র ভ্যান চালক মিনু মিয়াকে গণপিটুনি দিয়ে গুরুতর আহত করার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।

সোমবার দুপুরে উপজেলার ভূঞাপুর-তারাকান্দি সড়কের টেপিবাড়ি এলাকায় মানববন্ধন করা হয়।

টাঙ্গাইলে ভূঞাপুরের টেপিবাড়ি গ্রামের ভ্যান চালক মিনু মিয়া। জন্মের কিছুদিন পরেই মা হারা হন। এরপর ভ্যান চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে ছোট সংসার চালাতেন। এই সংসারে রয়েছে ছয় বছরের ছেলে ও ছয়মাসের গর্ভবতী স্ত্রী। সম্প্রতি বন্যায় মিনুর বসতভিটায় পানি প্রবেশ করলে কর্মহীন হয়ে পড়েন তিনি। টাকা ধার করে জাল কিনতে রোববার কালিহাতির সয়া হাটে যান। আর সেখানেই ছেলে ধরা সন্দেহে সরল মিনুকে অমানবিক গণপিটুনির শিকার হতে হয়। পরে নির্যাতনকারীরা মৃত ভেবে ফেলে গেলে পুলিশ এসে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানে সেখানেই মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন মিনু।

বৃদ্ধ বাবার সামর্থ্য নেই ছেলের চিকিৎসা করানোর। ছেলেকে বাঁচিয়ে রাখতে সকলের সহযোগিতা চেয়ে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

ভূঞাপুর পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শরিফুল আলম সোহেল বলেন, ‘এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।’

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারে শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘দোষীদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।প্রত্যেক থানা পুলিশের মাধ্যমে গণসচেতনতামূলক কাজ শুরু করা হয়েছে। এ লক্ষে জেলার প্রতিটি স্কুলেই টিম করে ভিজিট করা হচ্ছে। এছাড়াও জনপ্রতিনিধিদের সাথে নিয়ে এলাকায় এলাকায় সচেতনতা বৃদ্ধির কাজ করা হচ্ছে।’

গত দুই দিনে টাঙ্গাইলে আরও দুইজন ব্যক্তি ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির শিকার হয়েছে।

শেয়ার করুন: