চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

খুলনার সেই পৈশাচিক ঘটনা এবার ঘটলো নারায়ণগঞ্জে

খুলনায় পৈশাচিক কায়দায় শিশু রাকিব হত্যার এক বছর পূর্ণ না হতেই আবারও একই পৈশাচিকতায় নারায়ণগঞ্জে এক শিশু শ্রমিককে পেটে বাতাস ঢুকিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

রোববার রূপগঞ্জের যাত্রামোড়া এলাকায় জবেদা টেক্সটাইল অ্যান্ড স্পিনিং ফ্যাক্টরি নামে একটি তুলা কারখানায় ১০ বছরের শিশু সাগর বর্মণের পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে হত্যা করা হয় বলে নিহতের পরিবারের অভিযোগ।

নিহত সাগর বর্মন ওই কারখানায় শ্রমিকের কাজ করত। তার বাবার নাম রতন বর্মন। তাদের বাড়ি নেত্রকোনা জেলার কালিয়াজুড়ি উপজেলার গাজীপুর গ্রামে।

রতন বর্মন অভিযোগ করেন, তারা ছেলে জবেদা টেক্সটাইল অ্যান্ড স্পিনিং ফ্যাক্টরিতে চাকরি করে। দুপুর দেড়টার দিকে কয়েকজন শ্রমিক তাকে এসে জানান, তার ছেলের শরীরে বাতাস ঢুকানো হচ্ছে। তিনি সেখানে গিয়ে ছেলেকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার ছেলের মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির দেয়া তথ্যানুযায়ী , গুরুতর অবস্থায় শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে বিকাল ৪টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

কী কারণে, কে তাকে হত্যা করেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কারখানার পাঁচ শ্রমিক-কর্মচারীকে আটক করা হয়েছে।

গত বছরের ৪ অগাস্ট খুলনা নগরীর টুটপাড়া এলাকায় একটি মোটর গ্যারেজে মলদ্বারে পাইপের মাধ্যমে হাওয়া ঢুকিয়ে মো. রাকিব হাওলাদারকে হত্যা করা হয়।

ওই ঘটনায় দুই জনের ফাঁসির রায় হয়।

বিজ্ঞাপন