চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

খালেদার শিফন শাড়ি রাজনৈতিক বিষয় নয়: সৈয়দ আশরাফ

খালেদা জিয়ার শিফন শাড়ি বা ব্যক্তিগত বিষয় রাজনৈতিক বক্তৃতার বিষয় হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে তিনি দলের নেতা-কর্মীদের রাজনৈতিক ভাষায় কথা বলার পরামর্শ দিয়েছেন।

বিএনপি-জামায়াত আমলের দুর্নীতির দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেছেন, শেখ হাসিনা লুটপাটের রাজনীতি করেন না; এগুলো করে সৌদি আরবের রাজা-বাদশাহরা।

চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছিলো ২০০৫ সালে। ১১ বছর পর সম্মেলনের কারনে উৎসবমুখর পরিবেশ ছিলো জেলা স্টেডিয়াম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগের মতো এতো রক্ত পৃথিবীর আর কোন রাজনৈতিক দল দেয়নি। শুধু মাত্র বঙ্গবন্ধু, তার পরিবার এবং জাতীয় ৪ নেতাকেই হত্যা করা হয়নি, হত্যা করা হয়েছে আওয়ামী লীগ পরিবারের হাজার হাজার সদস্যকে।

সৈয়দ আশরাফ বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশটাকে নতুন স্থানে নিয়ে যেতে চান। মুক্তিযুদ্ধের আগেও মুক্তিযুদ্ধের পরেও এই বাংলাদেশে যা অর্জন হয়েছে সেই অর্জন হয়েছে এই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মাধ্যমে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে ঘোষণা দেন তাই বাস্তবায়ন করেন উল্লেখ করে সৈয়দ আশরাফ বলেন, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা ব্যক্তিগত উপার্জন বা ভোগ করার জন্য নয়। জননেত্রী শেখ হাসিনা লুটপাটের রাজনীতি করেন না। এগুলি করে সৌদি আরবের বাদশারা।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, আমার এক কলিগ বক্তৃতায় বললেন যে বেগম খালেদা জিয়া শিফন কাপড় পরে বা অনেক সোনার গয়না পরে। এইটা উনাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। উনার যদি টাকা থাকে তাহলে উনি কিনবেন না কেন? শিফন কিনুক, আরও যদি দামী কিছু থাকে সেগুলো কিনে পড়তে পারে। সেইটা কিন্তু রাজনীতির বিষয় না।

সম্মেলনের প্রথম পর্বে সৈয়দ আশরাফ সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের নাম প্রস্তাব করার পর হঠাৎ করেই একটি গ্রুপ চেয়ার ভাংচুর শুরু করলে পুলিশ টিয়ার শেল ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।