চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

খসরু নেই এক বছর

ভিন্ন ধারার চলচ্চিত্র আন্দোলনের পথিকৃৎ ছিলেন মুহম্মদ খসরু। তার নামটিই যেন একটি প্রতিষ্ঠান। সুস্থ চলচ্চিত্র আন্দোলনের পুরোধা এই ব্যক্তিত্ব ২০১৯ সালের এই দিনে (১৯ ফেব্রুয়ারি) ছেড়ে গেছেন সবাইকে।

কেরানীগঞ্জের রোহিতপুরের বাড়িতেই নিরবে নিভৃতে থাকতেন খসরু। মৃত্যুর আগে বহুদিন ধরেই শ্বাসকষ্ট, ডায়াবেটিস, অ্যাজমার সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

সুস্থ চলচ্চিত্র আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়া ছাড়াও বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম পত্রিকা ‘ধ্রুপদী’ ও ‘চলচ্চিত্র’ এর সম্পাদক মুহম্মদ খসরু। এছাড়া বেশ কয়েকটি গ্রন্থের প্রণেতাও তিনি। প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক ও অভিনেতা রাজেন তরফদারের বিখ্যাত চলচ্চিত্র ‘পালঙ্ক’-এ সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন।

হাসান আজিজুল হকের লেখা ‘নামহীন গোত্রহীন’ অবলম্বনে একটি চিত্রনাট্য তৈরি করেছিলেন অনেকদিন আগে, এটি নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণেরও স্বপ্ন দেখেছিলেন। রাষ্ট্রীয় অনুদানের জন্য জমাও দিয়েছিলেন দুবার, কিন্তু অনুদান পাননি। শেষ পর্যন্ত অর্থাভাবে তাঁর স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যায়।

উপমহাদেশের প্রখ্যাত চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব ঋত্বিক ঘটকের একটি সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেছিলেন ৭০-এর দশকে। যা ধ্রুপদী পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। পরে এই সাক্ষাৎকারটি উপমহাদেশের বিভিন্ন পত্রিকায় পুনর্মুদ্রণ হয়েছে।

প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে তাঁকে নিয়ে আলোচনা এবং চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরাম এবং বাংলাদেশ ফিল্ম সোসাইটি। বুধবার বিকেল ৫টায় আজিজ সুপার মার্কেটের (৩য় তলা) বাংলাদেশ চলচ্চিত্র কেন্দ্র।

ছবি: কামরুল মিথুন