চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কোচকে বললেন মাঠেই থাকব, এরপর হ্যাটট্রিক

‘আনচেলত্তি আমাকে প্রশ্ন করেছিলেন, মাঠ ছাড়তে চাই কিনা। বলেছি আরও কিছুক্ষণ থাকতে চাই। আমার প্রথম হ্যাটট্রিক করার সুযোগ ছিল এবং সেটা পাওয়ায় আমি ভীষণ খুশি।’

লেভান্তেকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেয়া ম্যাচে ক্যারিয়ারের প্রথম হ্যাটট্রিকের দেখা পাওয়ার পর এভাবেই বলেছেন ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার ভিনিসিয়াস জুনিয়র।

Reneta June

২১ বর্ষী ভিনিসিয়াস রিয়াল জার্সিতে হ্যাটট্রিক পাওয়াকে বেশ মর্যাদার হিসেবে দেখছেন। ক্যারিয়ার লম্বা করতে এমন পারফরম্যান্স তাকে উজ্জীবিত করবে বলেছেন। ভালো একটি মৌসুম কাটানোর পর তিনি সতীর্থদের অবদানকেও করেছেন স্মরণ।

বিজ্ঞাপন

‘এটা আমার প্রথম হ্যাটট্রিক। সতীর্থদের সঙ্গে দারুণ মৌসুম কাটালাম। সবাই আমাকে সহায়তা করেছে। হ্যাটট্রিক যাতে করতে পারি সেজন্যও বস (আনচেলত্তি) আমাকে আরও বেশি সময় মাঠে রেখেছিলেন। প্রথম হ্যাটট্রিক নিয়ে ভীষণ খুশি আমি, আজ খেলাটা আমারই ছিল।’

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ম্যাচে শুরুর একাদশে ছিলেন বেনজেমা ও ভিনিসিয়াস। দুজনের জুটি জমেছেও বেশ। ভিনিসিয়াসের কর্নার কিকে আসা বলে হেডে গোল করেন বেনজেমা। ভিনিসিয়াসের দ্বিতীয় গোলটির কারিগর আবার বেনজেমাই, তার পাসে মেলে বল। বিষয়টি বেশ উপভোগ করছেন তরুণ ব্রাজিলিয়ান।

‘মৌসুমজুড়ে বেনজেমা এবং আমার মধ্যে সম্পর্ক খুব ভালো ছিল। আশা করি তিনি অবসর না নেয়া পর্যন্ত সম্পর্ক এমনই থাকবে। নিশ্চিতভাবেই তিনি মাদ্রিদে অবসর নেবেন। তার দুর্দান্ত এক মৌসুম কাটছে। আশা করি ব্যালন ডি’অর পেয়ে মৌসুম শেষ করবেন। অনেক গোল করেছেন। আশা করি এই ক্লাবে আরও অনেক কিছু অর্জন করতে পারবেন। অর্জন করাটা তিনি খুব পছন্দ করেন।’

বেনজেমা-ভিনিসিয়াস জুটি নিয়ে উচ্ছ্বসিত কোচ কার্লো আনচেলত্তি। দুই শিষ্যকে কৃতিত্ব দিতে করেননি কার্পণ্য। বলেছেন, ‘ভিনিসিয়াস এবং করিম আজ রাতে আবারও ভালো করেছে। গোটা মৌসুমের মতো তারা ভালো করেছে। দুজন একে অপরকে ভালোভাবে বুঝতে পারছে।’