চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কেঁপে উঠলো নেপাল-তাইওয়ান

আবারও ভূমিকম্পের ধাক্কা নেপালে। শুক্রবার রিখটার স্কেলে ৫ দশমিক ৫ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে নেপালে।

ভূমিকম্প হয়েছে তাইওয়ানেও। সেখানে ৬ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প হয়। তাইওয়ানের স্থানীয় সময় ভোর চারটায় (বাংলাদেশ সময় রাত ২টা) এই ভূমিকম্পে একটি ভবন ধসের ঘটনায় দেশটিতে নিহত হয়েছে ৭ জন। 

শুক্রবার গভীর রাতে তাইওয়ানের রাজধানী তাইপে থেকে ৩০০ কিলোমিটার দক্ষিণের শহর তাইনানে ওই ভূমিকম্প হয়।

ভূমিকম্পে উচুঁ অ্যাপার্টমেন্টসহ অন্তত চারটি ভবন ধসে পড়ে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ধসে পড়া ভবনের সংখ্যা আটটি উল্লেখ করা হয়েছে।

পুরো শহরে দেখা দিয়েছে বিদ্যুৎ বিপর্যয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

তাইওয়ান দুটি টেকটনিক প্লেটের এমন একটি জায়গায় অবস্থিত যেখানে প্রায়ই ভূকম্পন অনুভূত হয়।

Advertisement

তাইনান শহরে ২০ লাখ লোকের বসবাস। টেলিভিশনের ফুটেজে দেখা যায়, ভূমিকম্পের পর উদ্ধারকর্মীর লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিচ্ছেন।

১৯৯৯ সালে তাইওয়ানে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভয়াবহ ভূমিকম্পে ২ হাজার ৩০০ মানুষ নিহত হয়েছিল।

এদিকে, ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণকারী মার্কিন সংস্থা ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভের বরাত দিয়ে জানানো হয়, এই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল নেপালের রাজধানী কাঠমাণ্ডু থেকে মাত্র ১৬ কিলোমিটার দূরেই।

ভূমিকম্পে কাঠমাণ্ডু কেঁপে উঠে। এ ছাড়া ভারতের বিহারের উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় এই কম্পন অনুভূত হয়। তবে  ভূমিকম্পে কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

ভূমিকম্পের কারণে স্থানীয় লোকজন ভীত হয়ে ঘর থেকে বাইরে বের হয়ে আসে। অনেকেই চিৎকার-চেঁচামেচি করতে শোনা যায়।

গত বছরের ২৫ এপ্রিল নেপালে ৭ দশমিক ৯ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে প্রায় ৮ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়।