চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কৃষকদের জন্য আসছে নতুন অ্যাপস

Nagod
Bkash July

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছেন, সরকার অল্প সময়ের মধ্যে কৃষকদের উপযোগী সহায়ক মোবাইল অ্যাপস তৈরি করেতে যাচ্ছে। পাশাপাশি দেশের ২শ’৫৪টি উপজেলার ফারমার্স ক্লাবকে ডিসেম্বরের মধ্যে বিদ্যুত ও তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি সুবিধাসম্পন্ন করবে সরকার।

Reneta June

কৃষিতে ই-সেবা সম্প্রসারণে কর্মশালায় এসব তথ্য দিয়েছেন তিনি।

সময় যতই গড়াচ্ছে বিশ্বজুড়ে কৃষিতে যুক্ত হচ্ছে নতুন প্রযুক্তি। দেশের প্রায় ১ কোটি ২০ লাখ কৃষক পরিবারের কাছে কৃষির তথ্য দ্রুত পৌঁছাতে সরকারের তথ্য ও যোগযোগ প্রযুক্তি বিভাগ কৃষি তথ্য সার্ভিসের মাধ্যমে বিভিন্ন উপজেলার ফার্মার্স ক্লাবগুলোকে তথ্য-প্রযুক্তির বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে ওয়ান স্টপ সেবা কেন্দ্রে পরিণত করার চেষ্টা করছে।

কৃষকদের নিয়ে রাজধানীতে কর্মশালায় কৃষি উন্নয়ন ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শাইখ সিরাজ বলেন, বাংলাদেশে যান্ত্রিক কৃষির ব্যবহার বাড়লে প্রতি বিঘায় উৎপাদন খরচ এক হাজার থেকে ১২শ’ টাকা কমানো সম্ভব।

তিনি অারো বলেন, কৃষকদের প্রয়োজনে একটি অ্যাপস হতে পারে যেখানে  থাকবে মাটি, ই-কৃষি, ই-ব্যাকিং, সকল প্রকার কৃষি উপকরণের মূল্য, বাজারদর এবং আবহাওয়া জনিত তথ্য।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, সরকার অল্প সময়ের মধ্যে কৃষকদের জন্য মোবাইল অ্যাপস তৈরি করবে। কারণ তৃণমূল পর্যায়ে যেসব কৃষক রয়েছে তাদের কাছে সঠিকভাবে আবহাওয়ার পূর্বাভাস পৌঁছানো, আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারসহ কৃষকের উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনার সমস্ত তথ্য এ অ্যাপসে থাকবে।

পাশাপাশি কৃষকদের প্রয়োজনে শাইখ সিরাজ যতোগুলো অ্যাপসের কথা বলেছেন এই তিনটি গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপস যতো দ্রুত সম্ভব কৃষি অধিদপ্তরের সাথে যৌথ ভাবে এবং শাইখ সিরাজকে সঙ্গে নিয়ে কাজটি শেষ করা হবে।

কর্মশালায় কৃষকদের হাতে ল্যাপটপ, মডেম, প্রিন্টারসহ মাল্টিমিডিয়ার নানা উপকরণ দেওয়া হয়। দু’দিনের কর্মশালায় দেশের বিভিন্ন উপজেলার কৃষকরা অংশ নেন।

BSH
Bellow Post-Green View