চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কুমিল্লার হত্যা মামলায় খালেদার জামিন স্থগিত থাকছে

কুমিল্লায় বাসে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

বিজ্ঞাপন

এই মামলায় খালেদার জামিন স্থগিত করে পূর্বের দেয়া আদেশ চলমান রেখে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ সোমবার এ রায় দেন।

বিজ্ঞাপন

সেই সঙ্গে এই মামলার জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের দেয়া রুল চার সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্ট আদালতকে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বেঞ্চ।

সোমবার আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আর খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন, এ জে মোহাম্মদ আলী ও জয়নুল আবেদীন ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

গত ২৮ মে হাইকোর্ট নাশকতার অভিযোগে বিশেষ ক্ষমতা আইনে করা এক মামলায় ও বাসে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে কুমিল্লায় করা এই মামলায় খালেদা জিয়াকে ছয় মাসের জামিন দেন।

সেই জামিন স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আবেদন করলে সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার বিচারপতির আদালত এই দুই মামলায় খালেদার জামিন স্থগিত করে আবেদন দুটি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠান।

গত ৩১ মে আপিল বিভাগ এই দুই মামলায় চেম্বার আদালতের দেয়া জামিন স্থগিতাদেশ বহাল রেখে ২৪ জুনের মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষকে নিয়মিত লিভ টু আপিল করতে নির্দেশ দেন। পরে রাষ্ট্রপক্ষ নিয়মিত লিভ টু আপিল করে।

এরপর সেই লিভ টু আপিলের শুনানি নিয়ে নাশকতার অভিযোগে কুমিল্লায় করা মামলায় খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন বহাল রেখে গত ২৬ জুন রায় দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

আর বাসে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে কুমিল্লায় কর মামলায় হাইকোর্টের দেয়া জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করে খালেদার জামিন স্থগিত চলমান রেখেই আজ রায় দেন আপিল বেঞ্চ।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫। এরপর থেকেই খালেদা জিয়া নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন।