চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কিয়েল্লিনির চোখে সালাহকে করা রামোসের ফাউল ‘মাস্টারস্ট্রোক’!

কিয়েভে ২০১৮ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে মুখোমুখি রিয়াল মাদ্রিদ ও লিভারপুল। ম্যাচের ২৫ মিনিট পর্যন্ত ভালোই চলছিল সবকিছু। একসময় লিভারপুলের মিশরীয় তারকা মোহামেদ সালাহকে অনেকটা জোরেই চেপে ধরে ফেলে দেন রিয়াল অধিনায়ক সার্জিও রামোস। ব্যথায় কাতর সালাহ শেষপর্যন্ত আর ফাইনাল শেষ করতে পারেননি, অল্পের জন্য হাতছাড়া হতে বসেছিল বিশ্বকাপে খেলাও। ফাইনালটা ৩-১ গোলে হেরে বসে লিভারপুল।

ফাইনালে রামোসের সেই ফাউলের পর আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে বিস্তর। এমন ‘গর্হিত’ ফাউল করার পর কেনো কার্ডও দেখলেন না রিয়াল অধিনায়ক, সেটা নিয়েও হয়েছে সমালোচনা। সেই ফাউলের পক্ষে হাতেগোনা মানুষ বলতে গেলে ছিলেন খুবই কম। দুবছর বাদে জুভেন্টাস সেন্টারব্যাক জর্জিও কিয়েল্লিনি বলছেন, রামোসের ওই ফাউলটা ছিল মাস্টারস্ট্রোক।

বিজ্ঞাপন

আত্মজীবনীতে রামোসকে নিয়ে কিয়েল্লিনি লিখেছেন, ‘সে বিশ্বের সেরা ডিফেন্ডার।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘অনেকে বলে সে আবেগপ্রবণ, তার মাঝে কৌশল কম। শুধু তার ভুলেই ৮-১০টা গোল বেশি হজম করতে হয় রিয়ালকে। আমার কাছে উল্টো মনে হয়। তার যে ব্যবহারিক জ্ঞান, তার স্ট্রাইকার হওয়া উচিত ছিল।’

‘তার মাঝে দুটো বৈশিষ্ট্য আছে যা সবার নেই। কোনো যুক্তি ছাড়াই, প্রয়োজনে শয়তানি বুদ্ধি দিয়ে, প্রতিপক্ষের ইনজুরি ঘটিয়ে হলেও সে জানে বড় ম্যাচে কীভাবে আচরণ করতে হয়।’

‘২০১৮ সালে সালাহকে ফাউল করা ছিল তার একটা মাস্টারস্ট্রোক। সে অনেকবারই বলেছে যে কোনো উদ্দেশ্য নিয়ে ওটা করেনি। দশবারের নয়বারই সে এমনটা করত। দরকার হলে প্রতিপক্ষের হাত ভেঙে হলেও সে কিছুতেই তাকে যেতে দেবে না।’