চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কিন্ডারগার্টেন স্কুল ও কলেজগুলো খুলে দেওয়ার দাবি

১ নভেম্বর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কিন্ডারগার্টেন স্কুল ও কলেজগুলো খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু কিন্ডারগার্টেন স্কুল ও কলেজ পরিষদ বাংলাদেশ।

সোমবার ঢাকায় জাতীয় অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলন তারা এই দাবি জানান। তাছাড়া সারা দেশে উপজেলা ও জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর নিকট স্মারক লিপি প্রদান করা হয়।

বিজ্ঞাপন

কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলোর জন্য একটি পৃথক বোর্ড বা একটি রেগুলেটরি কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছে পরিষদ। সম্মেলনে জানানো হয়, করোনা ভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও যখন লকডাউন শুরু হয় তখন থেকে সাত মাস যাবত স্ব-অর্থায়নে পরিচালিত দেশের প্রায় ৬০ হাজার কিন্ডারগার্টেন স্কুল ও কলেজ বন্ধ রয়েছে। ফলে ছাত্রছাত্রীর টিউশন ফিও আদায় সম্ভব হচ্ছে না। প্রায় ১২ লক্ষ শিক্ষক ও কর্মচারী বর্তমানে অসহায় অবস্থায় দিনযাপন করেছে। এক কোটিরও বেশি শিক্ষার্থীর ভবিষ্যতও হুমকির মুখে।

বিজ্ঞাপন

সম্মেলনে জানানো হয়, এই স্কুলগুলোর বেশিরভাগ ভাড়া বাসায় পরিচালিত হয় বলে ভাড়াও পরিশোধ করা দুস্কর হয়ে পড়েছে। যার প্রেক্ষিতে শিক্ষকদের জন্য জেলা প্রশাসন অথবা সরাসরি যে কোন সংস্থার মাধ্যমে আর্থিক ও খাদ্য সহায়তার ব্যবস্থা করার দাবি জানায় বঙ্গবন্ধু কিন্ডারগার্টেন স্কুল ও কলেজ পরিষদ। কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলোর জন্য সহজ শর্তে ও স্বল্পসুদে ব্যাংক ঋণ ক্রয় ব্যবস্থা করা, স্ব-উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে রক্ষার জন্য এই খাতকে ‘শিক্ষা উদ্যোক্তা’ ঘোষণা করা, কিন্ডারগার্টেন স্কুল নিবন্ধন প্রক্রিয়া সহজীকরণেরও দাবি জানায় সংগঠনটি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ২০০৩ সালে বিরোধীদলীয় নেত্রী থাকাকালে কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলোর নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়ের ঘটনা তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলনে বক্তরা জানান, এই স্কুলগুলোতে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক সরবরাহ নিশ্চিত করাসহ শিক্ষানীতি ২০১০-এ কিন্ডারগার্টেনকে অন্তর্ভুক্ত করা, নিজ বিদ্যালয়ের নামে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণের ব্যবস্থা করা এবং বেসরকারি বিদ্যালয় নিবন্ধন বিধিমালা-২০১১ এর আওতায় সকল কিন্ডারগার্টেন স্কুলকে নিবন্ধন প্রক্রিয়ার মধ্যে নিয়ে আসা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুগান্তকারী অবদান।

এই সময়ে সাংবাদিক সম্মেলনে স্মারক লিপি পাঠ করেন রোটারিয়ান আনিসুর রহমান মাস্টার। উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু কিন্ডারগার্টেন স্কুল এন্ড কলেজ পরিষদ বাংলাদেশ এর আহবায়ক লায়ন মোহাম্মদ কাবুল মিয়া, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক লায়ন হরেরাম দাস, যুগ্ম আহবায়ক মোস্তাফিজুর রহমান মুজাহিদুল, যুগ্ম আহবায়ক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, সাংগঠনিক সদস্য মোঃ আলাউদ্দিন মিয়া, আলমগীর কবিরসহ কেন্দ্রীয় নেতারা।