চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কার্ডিফের বাংলাদেশকে ভোলেননি গাপটিল

৩১ রানে ৪ উইকেট। সহজ জয়ের হাতছানিতে মুখে হাসি নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের। কিন্তু ম্যাচ শেষে সেই হাসি আর থাকেনি। বাংলাদেশের ওয়ানডে ইতিহাসের সর্বোচ্চ ২২৪ রানের জুটি গড়ে কিউইদের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় করে দিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান-মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ জুটি!

দেড় বছর আগে ওয়েলসের কার্ডিফে ইতিহাস গড়া ম্যাচের পর আবারও মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড। নেপিয়ারে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে বুধবার মুখোমুখি হওয়ার আগে কিউই ব্যাটসম্যান মার্টিন গাপটিলের মনে খোঁচাচ্ছে কার্ডিফের সেই হারের স্মৃতি।

‘বাংলাদেশের একটি মানসম্পন্ন দল আছে। আর ওরা সেটা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেই দেখিয়েছে। ওদের কাছে আমরা শেষ ম্যাচটা হেরে গিয়েছিলাম।’ বাংলাদেশকে যে মোটেও হাল্কাভাবে নিচ্ছেন না সংবাদকর্মীদের মাধ্যমে সেটাই যেন জানিয়ে দিলেন কিউই ওপেনার।

Advertisement

কার্ডিফে ঐতিহাসিক জয়ের অন্যতম কাণ্ডারি ছিলেন সাকিব আল হাসান। ১১৪ রানের ম্যাচসেরা এক ইনিংস খেলেছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। বিপিএলে আঙুলে চোট পাওয়ায় কিউইদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে তাকে পাওয়া হচ্ছে না টাইগারদের। বিশ্বমানের একজন প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতি স্বস্তির হলেও গাপটিল সেটা বুঝতে দিলেন না। টেস্ট সিরিজে দেখা হবে বলে জানিয়ে রাখলেন শুভ কামনা।

‘সাকিব একজন বিশ্বমানের ক্রিকেটার। সে প্রচুর ক্রিকেট খেলে। কিন্তু ক্রিকেটে চোট থাকবেই। তার জন্য এটা দুর্ভাগ্য যে প্রয়োজনের সময় চোটে পড়াটা। তবে সে একটা বিশ্রাম পেল। খুব সম্ভবত সে টেস্ট সিরিজটা খেলবে।’

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে অতীতে কখনোই জয়ের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের জন্য যদি এটা স্বস্তির হয়, তবে অস্বস্তি হচ্ছে ঘরের মাঠে সবশেষ ওয়ানডে রেকর্ড আর নেপিয়ারের ম্যাকলিন পার্কের রহস্যময় উইকেট। এই মাঠেই ভারতের বিপক্ষে ১৫৭ রানে অলআউট হয়েছে কিউইরা। পাঁচ ম্যাচ সিরিজে হেরেছে ৪-১ ব্যবধানে।

আগের সিরিজের ব্যর্থতা ভুলে বাংলাদেশের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় গাপটিলের। নেপিয়ারে একটা ভালো সূচনা হলে ম্যাচ হাতে চলে আসবে বলে মত ডানহাতি ওপেনারের, ‘আমরা সবাই আত্মবিশ্বাসী যে আমাদের শুরুটা ভালোই হবে। লম্বা দৌড়ের শুরুতে একটা ভালো সূচনা হওয়া দরকার।’