চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কাফরুলে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রাণসামগ্রী বিতরণ ও বৃক্ষরোপণ

মুজিব শতবর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত জাতীয় বৃক্ষরোপন কর্মসূচীকে সফল করার লক্ষ্যে বিভিন্ন জেলার স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মী বৃক্ষরোপণ কার্যক্রম পালন করছে।

এরই অংশ হিসেবে মীরপুর কাফরুলে বৃক্ষরোপণ এবং অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করলো ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাবেক কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু। সভাপতিত্ব করেন মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি ইসহাক মিয়া, পরিচালনা করেন নগর উত্তর সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান নাঈম।

বিজ্ঞাপন

প্রধান অতিথি গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু বলেন: প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন উন্নত দেশের ন্যায় বাংলাদেশ হবে সবুজ সমারোহ পরিবেষ্টিত একটি সুন্দর দেশ, আমরা তার এই স্বপ্ন বাস্তবায়নে অংশীদার হতে চাই।

আমরা জেলার নেতৃবৃন্দকে বলেছি, সাধারণ জনগণকে সম্পৃক্ত করে বনজ, ফলজ ও ঔষধি এই তিন ধরনের গাছ বেশী বেশী রোপন করুন ।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরো বলেন, প্রতিটি মানুষ যদি অন্তত পক্ষে ৫ টি করে বৃক্ষ রোপণ করে এবং পরিচর্যা ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব নেন, তাহলে বাংলাদেশ অচিরেই হবে সবুজে ঘেরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ।

ফলে বৈশ্বিক ও যে কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগকে মোকাবেলা করে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সহজেই সম্ভব হবে ।

প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির ঘোষনাকে স্বাগত জানিয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা ইতিমধ্যে প্রথম দিন থেকেই দেশব্যাপী বৃক্ষ রোপণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে, এই কর্মসূচি পালন অব্যাহত থাকবে ।

তিনি বলেন: কিছু দুর্নীতিবাজ বন কর্মকর্তার যোগসাজশে বন দস্যুরা গাছ কেটে ফরেস্ট উজাড় করে ফেলছে, তাদের এই অসত উদ্দেশ্যকে বাধা দিতে হবে এবং এই মহান কাজেুর দায়িত্বে থাকবে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীগণ, তাহলেই প্রধানমন্ত্রীর প্রকৃত উদ্দেশ্য সফল হবে বলে মনেকরি।

পূর্ব ঘোষিত অনুষ্ঠানে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি বাবু নির্মল রঞ্জন গুহ এবং সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু’র উপস্থিত থাকার কথা ছিল। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কারণে তারা উপস্থিত থাকতে পারেননি।