চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সংকটাপন্ন অভিনেতা কাদের, দেশে ফিরছেন ২০ ডিসেম্বর

ক্যানসার আক্রান্ত হয়ে ভারতের চেন্নাইয়ের ক্রিস্টিয়ান মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিখ্যাত ‘বাকের ভাই’ এর বদি খ্যাত অভিনেতা আবদুল কাদের। তার অবস্থা এখনও সংকটাপন্ন। আগামি ২০ ডিসেম্বর চেন্নাই থেকে দেশে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পরিবার।

চেন্নাই থেকে চ্যানেল আই অনলাইনকে এমনটাই জানিয়েছেন তার পুত্রবধু জাহিদা ইসলাম জেমি।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার বিকেলে জেমি বলেন, বাবার অবস্থা আগের মতোই অপরিবর্তিত। ক্যানসার ফোর স্টেজে থাকায় কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া যাচ্ছে না। শরীর প্রচণ্ড দুর্বল, এই অবস্থায় তাকে ক্যামিও থেরাপিও দেয়া যাচ্ছে না। তাই আমরা অপেক্ষা করছি, যদি শরীর একটুও ভালো হয় তবে ২০ ডিসেম্বর দেশে নিয়ে আসবো।

তিনি বলেন, শরীরের যে কন্ডিশন এখন, চিতিৎসকরা আইসিইউতে নিতে চেয়েছিলেন; পরে আবার তারাই পরামর্শ দিয়েছেন আইসিইউতে না নেয়ার। আইসিইউতে একবার নিলে আমরাতো তাকে পরে বাংলাদেশে নিয়ে যেতে পারবো না। উনাদের বলেছি, আমাদের বাবাকে একটু ভলো করে দেন, সুস্থ করে দেন- যেন ফ্লাই করে অন্তত দেশে নিয়ে যেতে পারি।

সেখানকার চিকিৎসকরা আপ্রাণ চেষ্টা করছেন বলেও জানান আব্দুল কাদিরের এই পুত্রবধু। জানালেন, রক্তে বাবার হিমোগ্লোবিনের মাত্রা কমতে কমতে তিনে এসে ঠেকেছিলো। খুব খারাপ অবস্থা ছিলো, দিনকে দিন তিনি শুকিয়ে যাচ্ছেন। চিকিৎসকদের আপ্রাণ চেষ্টায় এখন রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা ৫ এ উঠেছে। আজকে সকালেও আমি হাসপাতালে ছিলাম। ড্রেসিং করার সময় দেখেছি, বাবার প্রচুর ব্লাড যাচ্ছে।

ফোর স্টেজে এসে ক্যানসার চিহ্নিত করার বিষয়ে জেমি বলেন, বাবার ব্যাকপেইন ছিলো। বেশকিছু দিন ধরে আমরা দেশের বড় বড় হাসপাতালগুলোতে গিয়েছি। বহু পরীক্ষা নিরীক্ষা করেও কেউ বাবার ব্যাক পেইনের কারণ উদঘাটন করতে পারলেন না। সর্বশেষ পুরো শরীর সিটি স্ক্যান করে জানা যায় বাবার টিউমার হয়েছে। এরপরেই আমরা ভেতরে ভেতরে বাবাকে নিয়ে চেন্নাইয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করি। এখানে এসে চেকআপ করা হলে জানতে পারি বাবার ক্যানসার, শুধু তাই না সেটা পুরো শরীরে ছড়িয়ে গেছে।