চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কাতার বিশ্বকাপ বাতিলের দাবি

২০২২ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলের স্বাগতিক হিসেবে কাতারের নাম বাতিলের জন্য বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ফিফার কাছে লিখিত আবেদন জানিয়েছে ৬টি আরব দেশ। দেশগুলো- সৌদি আরব, ইয়েমেন, মৌরিতানিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর।

সুইস ভিত্তিক ওয়েবসাইট দ্য লোকাল সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে। ওপরের ছয়টি দেশ গত মাসে কাতারের সঙ্গে সব ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক বর্জন করেছে।

বিজ্ঞাপন

দেশগুলোর দাবি, মধ্যপ্রাচ্যের দেশ হিসেবে কাতারে ‘সন্ত্রাসবাদ’ দিনে দিনে চরম পর্যায়ে চলে যাচ্ছে।

ওয়েবসাইটটি জানাচ্ছে, ছয়টি দেশের কাতারে বিশ্বকাপ না আয়োজনের এই দাবির বিষয়টি ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো নিশ্চিত করেছেন। যদিও ফিফা এ সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক কোনও মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

বিজ্ঞাপন

ফিফার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সংস্থাটির সভাপতি এই ধরনের কোনও চিঠি এখনো পাননি। ফিফা প্রতিনিয়ত ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের স্থানীয় আয়োজক কমিটির সাথে যোগাযোগ রাখছে।

একাট্টা হওয়া দেশগুলো ফিফা কোডের ‘আর্টিকেল ৮৫’র রেফারেন্স দিয়ে কাতারের আয়োজক ক্ষমতা বাতিলের দাবি জানিয়েছে। ওই ধারায় জরুরি ক্ষেত্রে ফিফা যেকোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা রাখে।

যে ছয়টি দেশ কাতারের ব্যাপারে আপত্তি জানিয়েছে তার মধ্যে তিনটি দেশ কখনোই বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করেনি। সৌদি আরব ১৯৯৪ ও ২০০৬ সালে কোয়ালিফাই করে। আর ১৯৯০ সালে আরব আমিরাত এবং মিশর একবারই বিশ্বকাপ খেলেছিল।

মিসরীয় ফুটবল ফেডারেশনের একটি সূত্র জানিয়েছে, তারা কাতার বিশ্বকাপ বাতিলের দাবি সংক্রান্ত চিঠি ফিফার কাছে পাঠিয়েছে। এর আগে ১৯৮৬ সালে প্রথমে কলম্বিয়াকে বিশ্বকাপ আয়োজনের স্বাগতিক হিসেবে মনোনয়ন দিলেও পরবর্তীতে বিভিন্ন ইস্যুতে তাদের কাছ থেকে সরিয়ে সেই সত্ত্ব মেক্সিকোকে দেয়া হয়েছিল।