চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘কাঠের’ আগুনে পুড়ে ছাই ক্যারিবীয়রা

বেন স্টোকস ও জস বাটলারের ব্যাটে ভর করে লড়াইয়ের পুঁজি। তারপর বল হাতে জ্বলে ওঠেন মার্ক উড ও মঈন আলি। সব মিলিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে চেনাছন্দে ইংল্যান্ড। ক্যারিয়ারে প্রথমবার ৫ উইকেটের দেখা পেয়েছেন উড। তাকে দারুণ সঙ্গ দেন স্পিনার মঈন আলি। তাতে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষটিতে বড় লিড পেয়েছে ইংলিশরা।

ড্যারেন স্যামি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোববার দ্বিতীয় দিনে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড ২৭৭ রানে গুটিয়ে যায়। দলের হয়ে জস বাটলার ৬৭ ও বেন স্টোকস করেন ৭৯ রান।

জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ গুটিয়ে যায় মাত্র ১৫৪ রানে। স্বাগতিকদের ব্যাটিংয়ের এমন হাল করেন মার্ক উড (৫/৪১) ও মঈন আলি (৪/৩৬)। তাতে অতিথিরা পেয়ে যায় ১২৩ রানের লিড। পরে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে দিন শেষ হওয়ার আগে তারা আরও যোগ করে বিনা উইকেটে ১৯ রান।

সব মিলিয়ে ১৪২ রানে এগিয়ে জো রুটের দল। উইকেটে রয়েছেন ররি বার্নস ১০ ও কিটন জেনিংস ৮ রানে।

রোববার ৪ উইকেটে ২৩১ রান নিয়ে খেলা শুরু করা ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে কেমার রোচের তোপে গুটিয়ে যায় ২৭৭ রানে। শ্যানন গ্যাব্রিয়েলকে খেলতে গিয়ে বোল্ড হন জস বাটলার। এরপর বেন স্টোকসকে কট বিহাইন্ড করে ফেরান রোচ। পরে আর কোনো ব্যাটসম্যান প্রতিরোধ গড়তে পারেননি। ইংল্যান্ড শেষ ৬ উইকেট হারায় ৪৫ রানে। রোচ ৪৮ রানে নেন ৪ উইকেট।

জবাব দিতে নেমে পঞ্চাশ ছোঁয়া জুটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ভালো শুরু এনে দেন দুই ওপেনার ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট (১২) ও জন ক্যাম্পবেল (৪১)। কিন্তু পরপর দুই বলে তাদেরকে ফিরিয়ে ইংলিশদের ম্যাচে ফেরান মঈন।

এরপরই শুরু হয় মার্ক উডের ছোবল। ৪.২ ওভার হাত ঘুরিয়ে এ ডানহাতি পেসার ১৩ রানে শাই হোপ, ড্যারেন ব্রাভো, রোস্টন চেজ ও শিমরন হেটমায়ারকে ফিরিয়ে স্বাগতিকদের চাপে ফেলেন। উডের বাংলা যদি কাঠ করা হয়। তাহলে বলাই যায়, কাঠের আগুনে পুড়ে ছাই ক্যারিবীয়রা।

৭৯ রানে ৬ উইকেট হারানো ওয়েস্ট ইন্ডিজ শেষ পর্যন্ত দেড়শ ছাড়ায় শেন ডাওরিচ ও রোচের ব্যাটে। ডাওরিচকে (৩৮) এলবিডব্লিউ করে শেষ পর্যন্ত থামান স্টুয়ার্ট ব্রড। এরপর গ্যাব্রিয়েলকে ফিরিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে থামিয়ে দেন উড।