চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কাজ পেতে মিথ্যা বলেছিলেন মিলা কুনিস

হলিউডে অভিনয়ের সুযোগ পাওয়া এত সহজ নয়। বিশেষ করে নতুনদের জন্য খুবই কঠিন। হলিউডের প্রতিষ্ঠিত তারকা মিলা কুনিসের শুরুর যাত্রাও সহজ ছিল না। ‘দ্যাট সেভেন্টিজ শো’-তে অভিনয়ের সুযোগ পাওয়ার জন্য বড় মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছিলেন অভিনেত্রী।

বিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকের জনপ্রিয় কমেডি টিভি শো ছিল ‘দ্যাট সেভেন্টিজ শো’। ১৯৭০ এর দশকের পটভূমিতে টিনএজ বন্ধুদের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে সিরিজের কাহিনী। ১৯৯৮ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত প্রচারিত এই শোতে মিলা কুনিসের চরিত্রের নাম ছিল ‘জ্যাকি বারখার্ট’। বড়লোকের বখে যাওয়া মেয়ে, যে শো-এর শেষের দিকে এসে ‘ম্যাচিউর্ড’ হয়। এই চরিত্রে অভিনয়ের পূর্ব শর্ত ছিল শিল্পীর বয়স ১৮ হতে হবে। কিন্তু মিলা কুনিস যখন প্রস্তাব পান তখন তার বয়স ছিল মাত্র ১৪। তাই বয়স নিয়ে মিথ্যা বলে কাজের সুযোগ পেয়েছিলেন অভিনেত্রী।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এক সাক্ষাৎকারে মিলা কুনিস বলেছেন, ‘আমি তাদেরকে বয়স বাড়িয়ে বলেছিলাম। বলেছিলাম আঠারো হয়ে যাব। অবশ্য এটা কৌশলী উত্তর ছিল। মিথ্যাও বলা যায় না এটাকে। কারণ একদিন না একদিন তো আমি ১৮ হতামই।’

নির্মাতারা পরে অবশ্য জানতে পেরেছিলেন মিলা কুনিসের এই মিথ্যা সম্পর্কে। ততদিনে চরিত্রের জন্য নিজেকে উপযুক্ত প্রমাণ করে ফেলেছিলেন অভিনেত্রী। আর তাই, তাকে ‘দ্যাট সেভেন্টিজ শো’ থেকে সরানো হয়নি। কইমই

বিজ্ঞাপন