চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কাঁদা ছোড়াছুড়ি নির্বাচনের অংশ, এগুলো হবেই: মিশা

এফডিসিতে আসন্ন শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে কিছুটা অস্থিরতা বিরাজ করছে। একাধিক প্রার্থী একে অন্যের পক্ষে বিপক্ষে কাঁদা ছোড়াছুড়ি করছেন। তবে এগুলোকে ‘সাধারণ ঘটনা’ বলে মনে করছেন শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদপ্রার্থী মিশা সওদাগর।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় চ্যানেল আই অনলাইনকে জনপ্রিয় এই খল অভিনেতা বলেন, কাঁদা ছোড়াছুড়ি নির্বাচনের অংশ, এগুলো হবেই। আগেও ছিল, এখনো আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে।

বিজ্ঞাপন

কয়েকদিন আগে ড্যানিরাজ নামে একজন খল অভিনেতা আরেক সভাপতি প্রার্থী ও চিত্রনায়িকা মৌসুমীকে ‘আপনি কে’ বলে অপমান করেন! এ নিয়ে ব্যাপক হট্টগোল বাঁধে!

ওই প্রসঙ্গে মিশা বলেন, নির্বাচন ঘিরেই ঝামেলা হয়েছিল, যা কাম্য ছিল না। ড্যানি তার কৃতকর্মের জন্য মৌসুমীর কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু সমাধান করেছে।

সোহেল খান নামে একজন অভিনেতা নির্বাচন স্থগিত হতে পারে এমন বিষয়ে একটি উকিল নোটিশ দিয়েছেন। নির্বাচন স্থগিতের সম্ভাবনা আছে কিনা জানতে চাইলে মিশা বলেন, এটা নির্বাচন কমিশনার বলতে পারবেন। প্রার্থী হিসেবে তিনি এ বিষয়ে কিছু জানেন না। এমনকি নির্বাচন স্থগিতের বিষয়ে কমিশন থেকে আমাকে কিছু জানানো হয়নি।

আসন্ন নির্বাচন নিয়ে মিশা সওদাগর বলেন, জয়ের ব্যাপারে আমি আশাবাদী। গতবার ২১ টি নির্বাচনী ইশতেহার দিয়েছিলাম। ক্ষমতায় এসে দুই বছরে ৭০ শতাংশই পূরণ করেছি। আসন্ন নির্বাচনে জয়ী হলে বাকি কয়েকটি ইশতেহার পূরণে আগে চেষ্টা করবো।

তিনি বলেন, সরকার শিল্পীদের জন্য ৫০ কোটি টাকার একটি ফান্ড গঠনের উদ্যোগ নিয়েছিল। শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে এই ফান্ড বাস্তবায়নে কাজ করবো। আরও কিছু কাজের পরিকল্পনা রয়েছে সেগুলো চমক হিসেবে রাখতে চাই।

২৫ অক্টোবর হবে শিল্পী সমিতির দ্বিবার্ষিক নির্বাচন। যেখানে জায়েদ খান সাধারণ সম্পাদক পদে ও মিশা সওদাগর সভাপতি পদে একটি পূর্ণ প্যানেল দিয়েছেন। অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সভাপতি পদে লড়ছেন মৌসুমী এবং সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন ইলিয়াস কোবরা।

Bellow Post-Green View