চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনা হেল্পলাইনে ফোন করে সিঙ্গারা চেয়ে পেলেন ঝাড়ু!

বাইরে বের হতে পারছেন না! কারণ লকডাউন চলছে। বাধ্য হয়েই থাকত হচ্ছে ঘরে। কিন্তু এত সময় এমনি এমনি কি আর ঘরে বসে থাকা যায়? হাত পা না চালালেও মুখ তো চালানো যায়! কিছু খাওয়া যেতে পারে। সিঙ্গারা খাওয়ার জন্য মনটা আকুপাকু শুরু করলো তার। তবে দোকানপাট তো সব বন্ধ। কী করবেন?

মাথায় আইডিয়া আসলো, হেল্পলাইন আছে তো হাতের কাছেই। যে ভাবনা সেই কাজ। করোনা মোকাবেলায় যে হেল্পলাইনের নাম্বারে ফোন করার নির্দেশনা আছে, সেখানেই ফোন করে সিঙ্গারার অর্ডার দিলেন এক ব্যক্তি।

বিজ্ঞাপন

সঙ্গে সঙ্গেই পদক্ষেপ নিলেন ভারতের উত্তরপ্রদেশ সরকারের রামপুর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জনেয় কুমার সিং।

বিজ্ঞাপন

টুইটারে এই ঘটনা শেয়ার করে তিনি জানিয়েছেন, সিঙ্গারার জন্য বিরতিহীন ফোন করছিলেন ওই ব্যক্তি। বারবার ফোন করে সিঙ্গারা খেতে ব্যতিব্যস্ত করে তোলেন সবাইকে। ফলে অর্ডার দেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই সিঙ্গারা পৌঁছে দেওয়া হয় তার বাড়িতে। সঙ্গে শাস্তি হিসেবে তার হাতে ধরিয়ে দেওয়া হয় ঝাড়ু। তার দ্বারা পরিষ্কার করানো হয় বাড়ির পাশের ড্রেন।

ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জনেয় কুমার সিং টুইটারে সেই ছবিও পোস্ট করেছেন।

বিজ্ঞাপন

ইতোমধ্যে সেটি ২০ হাজার লাইক পেয়েছে। টুইটার ব্যবহারকারীরা  প্রশংসা করছেন, আর ব্যাপক বিনোদন নিয়েছেন।

এই ঘটনা শেয়ার করে ম্যাজিস্ট্রেট সবাইকে দায়িত্ববান ও সচেতন হওয়ার জন্য অনুরোধ করে বলেছেন, তুচ্ছ বিষয়ে বিরক্ত না করে জরুরি প্রয়োজনে যেন হেল্পলাইনে ফোন করা হয়।

জরুরি সাহায্যের জন্য তারা সবসময় প্রস্তুত আছেন সে কথাও জানানো হয় টুইটারে।

ভারতে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। সমস্ত পরিষেবা স্থগিত আছে। অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচলও স্থগিত আছে। স্থগিত আছে ট্রেন-পরিবহন চলাচল।

ভারতে ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসে মারা গেছেন ৪৫ জন। আর আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৫৯০ জন।