চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনা মোকাবিলায় শীতে প্রয়োজন অতিরিক্ত সচেতনতা

চলতি ডিসেম্বর মাসের এ সপ্তাহের শেষে শীতের তীব্রতা বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। তাদের তথ্যমতে, আর তিন-চার দিনের মধ্যেই নামতে শুরু করবে তাপমাত্রা। বাড়বে শীতের তীব্রতা। সঙ্গে পাল্লা ভারি করবে ঘন কুয়াশা। আবহাওয়ার নিয়মিত বুলেটিনে এ কথা জানানো হয়।

সারাবিশ্বের মতো দেশেও করোনা মহামারীর প্রকোপ চলমান। ইতিমধ্যে আবার দ্বিতীয় ঢেউ চলছে, আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা গত কয়েকমাসের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। শীতকালে সাধারণত মানুষের সর্দি-কাশি-জ্বরের প্রাদুর্ভাব একটু বেশি দেখা দেয়। করোনার উপসর্গের সঙ্গে ওইসব মৌসুমী রোগ মানুষের উৎকণ্ঠা বাড়িয়েছে, আবার অনেকে করোনা আক্রান্ত হবার পাশাপাশি শীতের কারণে তাদের কষ্ট ও

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মৃত্যু ঝুঁকি বেড়ে গিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

দেশে করোনায় মোট আক্রান্ত এখন পর্যন্ত ৪ লাখ ৮১ হাজার ৯৪৫ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৯০৬ জনের। তবে আশার কথা উল্লেখযোগ্য পরিমাণ মানুষ আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। যার সংখ্যা ৪ লাখ ৮১ হাজার ৯৪৫ জন। মৃত্যুবরণ করা মানুষদের মধ্যে বেশিরভাগই প্রবীণ ও আগে থেকে গুরুতর অসুস্থ ছিলেন বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিসংখ্যানে জানা গেছে।

প্রবীণ ও শিশু-কিশোরদের এই শীতের মৌসুমে অতিরিক্ত সাবধানতা মেনে চলা উচিত বলে আমরা মনে করি। সেইসঙ্গে যাদের শ্বাসতন্ত্রে সমস্যা, হাঁপানি-অ্যাজমা রয়েছে তাদের বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন।

সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন কর্তৃপক্ষ করোনা মোকাবিলায় হাতে হাত মিলিয়ে জনগণকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। করোনার প্রকোপের শুরুর দিকের চেয়ে বর্তমানে মানুষের মনোবল কিছুটা হলেও বেড়েছে। যা খুবই ইতিবাচক। এছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো দেশেও করোনার ভ্যাকসিন আসছে আসছে করছে। সবমিলিয়ে এই শীতের মৌসুমের সময়টিকে সাবধানতার সঙ্গে পার করে দেয়া গেলে করোনা হয়তো নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে আমাদের ধারণা।

বিজ্ঞাপন