চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘করোনা-বদলি’ ও নতুন যেসব নিয়ম করল আইসিসি

ক্লাব ফুটবলে ‘বদলি বাড়ানোর’ নতুন নিয়মে খেলোয়াড় তিন থেকে বাড়িয়ে পাঁচজন করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে বিশ্ব ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা ফিফা। ক্রিকেটের অভিভাবক আইসিসিও আনল নতুন কিছু নিয়ম। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্যটি হল, টেস্টে ‘করোনা-বদলি’র অনুমোদন দিয়েছে সংস্থাটি।

সামনের মাসে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্ট সিরিজেই ‘করোনা-বদলি’সহ নতুন কিছু নিয়মের কার্যকরণ শুরু হবে। অনিল কুম্বলের নেতৃত্বে আইসিসির ক্রিকেট কমিটি যেসব নিয়মের সুপারিশ করেছিল গত মাসে, তার কিছু অনুমোদন দিয়েছে আইসিসির নির্বাহী কমিটি।

বিজ্ঞাপন

মাথায় বল লেগে খেলোয়াড় পাল্টানোর নিয়ম চালু হয়েছে মাত্র গতবছর। পরিস্থিতি পাল্টে গেল পরের বছরই, ২০২০ সালে করোনার থাবায় থমকে আছে বিশ্ব। মহামারীর রক্তচক্ষু এড়িয়ে ক্রিকেট একটু একটু করে মাঠে ফেরানোর পরিকল্পনা চলছে, ভয় কখন না আবার কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যান কোনো ক্রিকেটার। সেটা যদি ম্যাচের সময়ে ঘটে?

বিজ্ঞাপন

সেই দুশ্চিন্তা থেকেই আইসিসির কাছে নতুন এক ইচ্ছের কথা জানিয়েছিল ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। করোনা পরিস্থিতির মাঝেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পরে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট খেলার পরিকল্পনা ইংল্যান্ডের। ইসিবির ডিরেক্টর স্টিভ এলওর্থির বলেছিলেন, আইসিসির কাছে তাদের একটাই চাওয়া, সিরিজের মাঝখানে কোনো খেলোয়াড় করোনায় আক্রান্ত হয়ে গেলে তার বদলি নামানোর অনুমতি যেন দেয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

করোনা-বদলি: মাথায় আঘাত পাওয়া বা কনকাশন বদলি খেলোয়াড়ের মতো করোনা-বদলি খেলোয়াড়ের জন্য আইসিসির কাছে ইসিবি সুপারিশ করে। সেটারই সাময়িক অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি। টেস্ট চলাকালীন কোনো খেলোয়াড়ের করোনা উপসর্গ দেখা দিলে তার বদলি কাউকে একাদশে নিতে পারবে দল। কনকাশন বদলির মতো করে কেবল একই ধরনের খেলোয়াড় নামাতে হবে। ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টির জন্য এটি কার্যকর নয়।

বলে লালা: করোনা থেকে দূরে থাকতে বলে মুখের লালা ব্যবহার আগেই নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। খেলোয়াড়দের সুরক্ষায় এক্ষেত্রে কড়াই থাকবেন আম্পায়াররা। ভুল করেও কেউ বলে লালা ব্যবহার করলে সংশ্লিষ্ট দলকে প্রথমে সতর্ক, যা প্রতি ইনিংসে একটি দলকে দুবার করা হবে, তারপরেও লালাকাণ্ড ঘটালে ব্যাটিং দলকে ৫ রান বোনাস দেয়া হবে। শেষে বল জীবাণুমুক্ত করে ফের খেলা গড়ানোর নির্দেশ দেবেন আম্পায়ার।

অতিরিক্ত রিভিউ: মহামারী সময়ে কম অভিজ্ঞ ম্যাচ অফিসিয়াল দায়িত্ব পালন কালে ভুল করে বসতে পারেন। সেই বিবেচনায় টেস্টে প্রতি ইনিংসে একটি বাড়তি রিভিউ অনুমোদন করেছে আইসিসি। টেস্টে এখন প্রতি ইনিংসে তিনবার রিভিউ নেয়ার সুযোগ থাকবে দলগুলোর। সাদা বলের ম্যাচে সেটি প্রতি ইনিংসে দুবার করে।

স্থানীয় অফিসিয়াল: করোনা পরিস্থিতিতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দেশে দেশে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিরপেক্ষ আম্পায়ারের নিয়ম তাই আপাতত শিথিল করেছে আইসিসি। ম্যাচ অফিসিয়াল হিসেবে স্থানীয়দের ব্যবহার করা যাবে প্রয়োজন অনুযায়ী।