চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনা পরবর্তী অনাহারে প্রতিদিন ১২ হাজার মানুষের মৃত্যু হবে

করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে বিশ্বব্যাপী ক্ষুধা মহামারী সৃষ্টি হবে বলে মন্তব্য করেছে অক্সফ্যাম ইন্টারন্যাশনাল। এই ক্ষুধার তাড়নায় প্রতিদিন বিশ্বব্যাপী ১২,০০০ মানুষ মৃত্যুবরণ করবে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছে তারা। যা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একদিনে মৃত্যুর সংখ্যার থেকেও বেশি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন ১০,০০০ মানুষের মৃত্যুর ঘটে ২০২০ সালের এপ্রিলে।

বিজ্ঞাপন

‘ক্ষুধা ভাইরাস’ এর আক্রমণে ১২ কোটি বিশ লক্ষ মানুষ ক্ষুধার জ্বালায় ভুগবে। মহামারীর কারণে যে সামাজিক ও অর্থনৈতিক অবক্ষয় তৈরি হবে তাতে বেকারত্ব, খাবার তৈরি ও সরবরাহে বাধা ও ক্রমহ্রাসমান সহায়তার কারণে এমন পরিস্থিতি তৈরি হবে বলে মন্তব্য অক্সফ্যামের।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

অক্সফ্যামের অন্তর্বর্তীকালীন এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ছেমা ভেরা বলেন, সংঘাত, জলবায়ু পরিবর্তন, বৈষম্য এবং একটি ভাঙ্গা খাদ্য ব্যবস্থার প্রভাবের সাথে লড়াই করা লক্ষ লক্ষ খাদ্য উৎপাদনকারী ও শ্রমিককে করোনাভাইরাস ইতিমধ্যে দরিদ্র করে তুলেছে।

ব্রিফিংয়ে বলা হয়, ক্ষুধার হটস্পট যেমন ভেনিজুয়েলা বা সাউথ সুদানের মতো দেশগুলোতে খাবারের সঙ্কট আরো তীব্র হচ্ছে, মহামারীর কারণে সেটা আরো চূড়ান্ত রূপ ধারণ করবে। মধ্য আয়ের দেশ যেমন ভারত, সাউথ আফ্রিকা, ব্রাজিলেও অনেকেই ভঙ্গুর পরিস্থিতির মধ্যে পড়ে গেছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। বর্তমানে সারাবিশ্বে  ১ কোটি ২১ লাখ মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত। প্রাণ হারিয়েছে ৫ লাখ ৫২ হাজারেরও বেশি মানুষ। আর সুস্থ হয়েছে ৭০ লাখ ৭১ হাজারের বেশি জন।