চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনা: নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এইচএসসি’র প্রবেশপত্র বিতরণ

টাঙ্গাইলে করোনা আতঙ্কের মধ্যে সরকারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশনা অমান্য করে নোটিশ জারি করে শিক্ষার্থীদের ডেকে এনে প্রবেশপত্র বিতরণ করছে ভূঞাপুর ইব্রাহীম খাঁ সরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষ।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে এইচএসসি’র মানবিক শাখার শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র বিতরণ শুরু হয়।

বিজ্ঞাপন

পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন বা বন্ধ না হওয়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রবেশপত্র বিতরণ করা হচ্ছে বলে দাবী কলেজ অধ্যক্ষ বেনজীর আহমেদের। তবে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) বজলুর রশিদ বলেন: এ ধরণের কার্যক্রমের কোন সুযোগ নেই।

ইব্রাহীম খাঁ সরকারি কলেজ সূত্রে জানা গেছে, কলেজে ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষার জন্য প্রবেশপত্র বিতরণের তারিখ নির্ধারণ করে নোটিশ দেয়া হয়। সেই মোতাবেক মানবিক শাখার শিক্ষার্থীরা ২১ মার্চ, ব্যবসায় শাখা শিক্ষার্থীরা ২২ মার্চ ও বিজ্ঞান শাখার শিক্ষার্থীরা ২৩ মার্চ সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত কলেজ ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয়ে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে হবে।

নোটিশে আরো জানানো হয়, নির্ধারিত সময়ের আগে ও পরে শিক্ষার্থীদের কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে না।

বিজ্ঞাপন

সরেজমিনে দেখা গেছে, শিক্ষার্থীরা সকাল থেকেই প্রবেশপত্র সংগ্রহের জন্য কলেজে ভীড় জমাচ্ছে। কলেজের টিনশেড ঘরের ১১৮ কক্ষে গিয়ে প্রবেশপত্র নিচ্ছে শিক্ষার্থীরা। এছাড়া কলেজের অফিস কক্ষে গণজমায়েত হয়ে পরীক্ষা সংক্রান্ত অন্যান্য কাজ করছে শিক্ষার্থীরা।

কলেজে আসা শিক্ষার্থীরা জানায়, সারাদেশেই সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করোনা ভাইরাসের জন্য বন্ধ সেখানে কলেজ কর্তৃপক্ষের বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে কলেজে এসে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে হচ্ছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে না পারলে পরে ঝামেলা হতে পারে এই কারণে নির্ধারিত সময়েই সংগ্রহ করছি।

ওই কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর বেনজীর আহমেদ জানান: এইচএসসি পরীক্ষা বন্ধ ঘোষণা না করায় শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র দিতে হচ্ছে। সব কলেজেই শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র দিচ্ছে। প্রবেশপত্র নিতে আসা শিক্ষার্থীদের জন্য সুরক্ষা নিশ্চিতের জন্য কলেজ ক্যাম্পাসে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা হাত ধুয়ে প্রবেশপত্র সংগ্রহে করে কলেজ ত্যাগ করছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. নাসরীন পারভীন জানান: ইব্রাহীম খাঁ সরকারি কলেজে শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র বিতরণের বিষয়টি জানা নেই। এখনই কলেজের কার্যক্রম বন্ধের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) বজলুর রশিদ বাবলু জানান: শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা রেখে এই ধরনের কার্যক্রম করার কোন সুযোগ নেই। যেহেতু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে সেহেতু কোন কলেজ কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের ডেকে নিয়ে প্রবেশপত্র দিতে পারবে না এবং সেটা উচিৎ না।