চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনা টিকা কি ঋতুচক্রে প্রভাব ফেলে?

করোনা টিকা নিলে নারীদের মাসিক বা ঋতুচক্রে সামান্য পরিবর্তন আসতে পারে। তবে তা সামান্য। ব্রিটেনের বিশেষজ্ঞরা এ দাবি করেছেন। এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র এবং নরওয়েতে নারীদের ঋতুচক্র পর্যবেক্ষণকারীদের তথ্যও আশাব্যঞ্জক বলেছেনে ‘ইমপেরিয়াল কলেজ লন্ডনের’ ড. ভিক্টোরিয়া মেল। করোনা ভ্যাকসিন ঋতুচক্রে এমনকি প্রজননে প্রভাব ফেলছে এমন উদ্বেগকে নাকচ করে দিয়েছেন ভিক্টোরিয়া। তিনি বলছেন মিথ্যা তথ্য অকারণে মানুষের উদ্বেগ বাড়াচ্ছে।

ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নাল (বিএমজে) বলছে, কোভিড ভ্যাকসিন প্রজনন ক্ষমতায় প্রভাব ফেলে এমন কোন তথ্য প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

Reneta June

‘দ্যা মেডিসিন এন্ড হেলথকেয়ার প্রডাক্টর রেগুলেটরি এজেন্সি’ (এমএইচআরএ) অবশ্য ভ্যাকসিন নেয়ার পর অনাকাংখিত রক্তস্রাব, অতিরিক্ত রক্তপাত এবং বিলম্বিত মাসিকের ৩৭ হাজার তথ্য পেয়েছে। তবে এসব প্রতিক্রিয়া বা পরিবর্তন যে ভ্যাকসিন নেওয়ার কারণে হয়েছে তার কোন প্রমাণ নেই। কারণে নারীদের ঋতুচক্রে পরিবর্তন স্বাভাবিক একটি প্রক্রিয়া। তবে এ নিয়ে আরও গবেষণা করতে বলেছে এমএইচআরএ।

বিজ্ঞাপন

ঋতুচক্র ট্র্যাকিং অ্যাপ ব্যবহার করেন এমন ৪ হাজার মার্কিন নারীর মধ্যে গবেষণা চালিয়ে দেখা গেছে ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন যারা তাদের মাসিক শুরু সময় প্রায় ১২ ঘণ্টা পিছিয়েছে। তবে প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন নেয়ার পর এমন কোন পরিবর্তন পাওয়া যায়নি।

সাধারণ পর্যবেক্ষণ

দুই ডোজ কোভিড ভ্যাকসিন নিয়েছেন এমন নারীদের পিরিয়ডের সময় দুই মাস দেরি হয়েছে বলে অনেক নারী জানিয়েছেন। তবে ড. ভিক্টোরিয়া মেল বলেছেন, যুক্তরাজ্যে নারীদের কাছ থেকে এমন কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। বৃটেনে দুই ডোজ ভ্যাকসিনের মধ্যে সময়ের ব্যবধান আট সপ্তাহ।

নরওয়েতে পরিচালিত আরেকটি গবেষণায় দেখানো হয়েছে প্রাকৃতিকভাবেই ঋতুচক্রের পরিবর্তনগুলো কী কী হতে পারে। ৫ হাজার ৬শ’ নারীর মধ্যে ওই গবেষণা পরিচালনা করা হয়েছে।  প্রায় ৪০% নারীর মধ্যে ভ্যাকসিন নেয়ার আগেই অতিরিক্ত রক্তপাতের প্রবণতা দেখা গেছে।

এ বিষয়ে ড. ভিক্টোরিয়া বলেছেন, ভ্যাকসিন নেয়ার পর নারীদের ঋতুচক্রে পরিবতর্ন লক্ষ্য করা গেলেও সেসব খুবই সামান্য। প্রজনন ক্ষমতা কমে যাওয়ার যে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে তার মূল কারণ ভুল তথ্য বা মিসইনফরমেশন।