চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনা আক্রান্তদের সেবা দিচ্ছে ‘এভারকেয়ার হাসপাতাল চট্টগ্রাম’

জটিল সব চিকিৎসা, অস্ত্রোপচারের পাশাপাশি করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের নিরবচ্ছিন্নভাবে সেবা দিয়ে যাচ্ছে ‘এভারকেয়ার হাসপাতাল চট্টগ্রাম’। 

সম্প্রতি হাসপাতালটি স্থানীয় কিছু গণমাধ্যমের সাথে একটি ওয়ার্কশপ সেশন এবং অভিজ্ঞতা বিনিময় অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে হাসপাতালের পক্ষ থেকে কয়েকজন চিকিৎসক, হাসপাতালের বর্তমান সার্বিক কার্যক্রম, ব্যবস্থাপনা ও সাম্প্রতিক সাফল্যের অভিজ্ঞতা নিয়ে আলোচনা করেন।

ওয়ার্কশপ সেশন এবং অভিজ্ঞতা বিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রামের চীফ অপারেটিং অফিসার নীলেশ গুপ্ত, মেডিকেল সার্ভিসেসের পরিচালক ডা. প্রকাশ কুণ্ডুর নারাসিমহাইয়া, মেডিকেল সার্ভিসেসের মহাব্যবস্থাপক ডা. মোহাম্মদ ফজল- ই- আকবর চৌধুরীসহ অন্যান্যরা।

এভারকেয়ার চট্টগ্রাম হসপিটালে রয়েছে অত্যাধুনিক এবং বিশ্বমানের ক্যাথ ল্যাব এবং কার্ডিয়াক অপারেশন থিয়েটার। এখানে ২৪/৭ দক্ষ হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ, হৃদরোগ সার্জন এবং ক্রিটিকাল কেয়ার বিশেষজ্ঞগণের সমন্বয়ে হৃদরোগের যাবতীয় জটিল রোগের চিকিৎসা সুলভমূল্যে সম্পন্ন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

ঢাকার পর চট্টগ্রামের অনন্যা আবাসিক এলাকায় ৪৭০ শয্যাবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক মানের এই হাসপাতালটিতে আরও রয়েছে ২৪ ঘণ্টার জরুরি বিভাগ, সর্বাধুনিক আইসিইউ সুবিধা এবং ২৭টি বিশেষ ও উপ-বিভাগে যা পুরো অঞ্চলের ধারণক্ষমতার শূন্যস্থান পূরণে সক্ষম। এছাড়াও রয়েছে পাঁচ শতাধিকের বেশি মেডিকেল প্রোফেশনালস।

চার লাখ ৯২ হাজার বর্গফুটের বিশাল আয়তনের জায়গা নিয়ে ঢাকার চেয়েও বৃহৎ পরিসরে নির্মিত হয়েছে হাসপাতালটি।

রোগীর চিকিৎসা অভিজ্ঞতা ও সফলতা
অনুষ্ঠানে হাসপাতালের ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলোজির সিনিয়র কনসালটেন্ট  ডা. জহিরউদ্দিন মাহমুদ ইলিয়াছ একজন রোগীর চিকিৎসা অভিজ্ঞতা ও সফলতার কথা সকলের সামনে তুলে ধরেন।

ডায়াবেটিক আক্রান্ত রোগী বদিউল আলম, তীব্র বুক ব্যথা নিয়ে ভর্তি হন এভারকেয়ার হসপিটালে। রোগীর এনজিওগ্রাম করে ডা. জহিরউদ্দিন মাহমুদ ইলিয়াছ দেখেন তার মূল রক্তনালীর ৩ টিতেই জটিল ব্লক রয়েছে, যার একটি ছিল ৯০-৯৫ শতাংশ, একটি ৯০ শতাংশ এবং অন্যটি ৯৯ শতাংশ। রোগীর হার্ট পাম্পিং (কার্যক্ষমতা) ছিলো মাত্র ৩০ শতাংশ।

এমন জটিল রোগীর করনারী স্টেস্টিং আমাদের অত্যাধুনিক ক্যাথ ল্যাবে অত্যন্ত দ্রুততার সাথে দক্ষ কার্ডিয়াক টিমের সহযোগিতায় ডা. জহিরউদ্দিন মাহমুদ ইলিয়াছের তত্ত্বাবধানে সুচারুভাবে সম্পন্ন হয়। বর্তমানে সুস্থ আছেন বদিউল আলম।