চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনায় আবার বিপর্যস্ত পৃথিবী, আক্রান্ত ছাড়িয়েছে ৫ কোটি

কিছুদিন সামান্য নিয়ন্ত্রণে থাকার পর করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে আবার বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে পৃথিবী। এ ভাইরাসে বিশ্বব্যাপী আক্রান্তের সংখ্যা ৫ কোটি ৭ লাখ ২৮ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। আর মৃতের সংখ্যা ১২ লাখ ৬১ হাজার।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য, গত ডিসেম্বর চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ার পর হঠাৎ অক্টোবরেই সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে করোনাভাইরাসে মানুষ। এবং নভেম্বরে তা আরও বাড়ছে।

বিজ্ঞাপন

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৭২ হাজার ৪৬৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৮৫৯ জন।

যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়তে থাকে। দৈনিক ১ লাখ রোগী শনাক্ত হয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায়। দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৫১২ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি অক্টোবর এবং নভেম্বরে ইউরোপেও রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, যাতে সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা বেড়ে ৫ কোটিতে পৌঁছেছে।

ডিসেম্বরে ইউরোপকে বিপর্যস্ত করে করোনাভাইরাস হানা দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রে; গরমের সময় সংক্রমণ কিছুটা কমে এলেও শীত ঘনিয়ে আসার সঙ্গে আবারও মৃত্যু এবং আক্রান্ত বাড়ছে ফ্রান্স, স্পেন ও ইতালিতে।

শীতের শুরুতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি থেকে চার কোটিতে যেতে যেখানে লেগেছিল ৩২ দিন, সেখানে সর্বশেষ এক কোটি বাড়তে লাগল ২১ দিন।

আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি ১ কোটি ২০ লাখ ইউরোপে, বিশ্বে মোট মৃত্যুর ২৪ শতাংশই এই মহাদেশের।

বিজ্ঞাপন

ইউরোপে এখন প্রতি তিন দিনে ১০ লাখের মতো রোগী শনাক্ত হচ্ছে, যা বিশ্বে এই সময়ে আক্রান্তের মোট সংখ্যার অর্ধেকের বেশি।

ফ্রান্সে গত সপ্তাহে গড়ে প্রতি দিন ৫৪ হাজারের মতো আক্রান্ত হয়েছে, যা ভারতের চেয়ে বেশি।

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে লকডাউনসহ বিধিনিষেধের কড়াকড়ি আবার ফিরিয়ে আনছে।

রোগীর সংখ্যা বিচারে এখনও বিশ্বে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, দেশটিতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ছাড়িয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি রোগী ভারতে, সংখ্যাটি ৮৫ লাখের বেশি। আক্রান্তের সংখ্যা সেখানে প্রতিদিন ৪৬ হাজার করে বাড়ছে।

ভারতের পরে রয়েছে ব্রাজিল, দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৬ লাখের বেশি। তারপরে রয়েছে রাশিয়া সাড়ে১৭ লাখ, ফ্রান্স ১৭ লাখ, স্পেন ১৩ লাখ, আর্জেন্টিনা ১২ লাখ ও যুক্তরাজ্য ১২ লাখ।

মৃতের সংখ্যায়ও সবার উপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, দেশটিতে ইতোমধ্যে ২ লাখ ৩৭ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে।

তারপরে রয়েছে ব্রাজিল ১ লাখ ৬২ হাজার, ভারত ১ লাখ ২৬ হাজার, মেক্সিকো ৯৪ হাজার, যুক্তরাজ্য ৪৯ হাজার, ইতালি ৪১ হাজার ও ফ্রান্স ৪০ হাজার।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। ইতোমধ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্ত থেকে সুস্থ হয়েছেন সোয়া ৩ কোটি মানুষ।