চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনার মাঝেই ৮ বছর পর ‘লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ’

শ্রীলঙ্কার প্রথম বড় টি-টুয়েন্টি আয়োজন ছিল লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ। ২০১২ সালে প্রথমবার মাঠে গড়ানোর পর আর্থিক অসঙ্গতির কারণে পরের বছর থেকে দেখা যায়নি টুর্নামেন্টটি। করোনার মাঝে আট বছর পর ২৮ আগস্ট থেকে ফের শুরু হচ্ছে লিগ।

দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে শ্রীলঙ্কায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেশ কম। এরমাঝে দেশটিতে লকডাউন নেই, গত একমাসে গণহারে করোনা সংক্রমণের খবরও শোনা যায়নি। দ্বীপ দেশটিতে বৈদেশিক বিমান উঠা-নামা বেশ কঠিনভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। এমনকি প্রবাসীদের নিজ দেশে প্রবেশ নিষেধ!

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সবকিছু মিলিয়ে গত একমাসে চলতে থাকা গুঞ্জনকে সত্যি বলে ঘোষণা দিয়েছে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড। টুর্নামেন্টের জন্য ৭০ জন আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় ও শীর্ষ ১০ কোচকে ৫ দলে ভাগ করা হবে।

শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী অ্যাশলি ডি সিলভা ক্রিকইনফোকে জানিয়েছেন, কীভাবে বিদেশি খেলোয়াড় ও কোচদের আনা যায় তা নিয়ে চিন্তাভাবনা চলছে। কতদিন তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে সেটি অবশ্য জানা নেই কারও। সরকারের সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনা করছে লঙ্কান বোর্ড।

মোট ২৩টি ম্যাচ হবে লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগে। খেলা হবে খেত্তারামা, সুরিয়াভেভা, পাল্লেকেলে ও ডাম্বুলায়। কিছুদিন বিরতি দিয়ে এক স্টেডিয়াম থেকে আরেক স্টেডিয়ামে যাবেন ক্রিকেটাররা। কলম্বো, গল, জাফনা, ডাম্বুলা ও ক্যান্ডি- এই পাঁচ দল নিয়ে হবে টুর্নামেন্ট।