চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনার নতুন ‘মৃত্যুপুরী’ হয়ে উঠার পথে ব্রাজিল

যুক্তরাজ্য,স্পেন,ইতালি,ফ্রান্সকে পেছনে ফেলে করোনায় একদিনের মৃত্যুর হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই উঠে এসেছে ব্রাজিল। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, ল্যাটিন আমেরিকার এই দেশটি নতুন করে করোনার মৃত্যুপুরী হয়ে উঠতে পারে। ব্রাজিলে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু’র মিছিল তারই প্রমাণ দিচ্ছে। আর এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যু ১১ হাজারের বেশি।

ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুয়ায়ী, সোমবার ব্রাজিলে মারা গেছে ৫০২ জন। ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃত্যুর হিসেবে এটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। বরাবরের মতোই সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। যেখানে মারা গেছে ১ হাজার ৮ জন। এর পরেই সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে ব্রাজিলে।

বিজ্ঞাপন

ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৬৯ হাজার ১৪৩ জন মানুষ। এদের মধ্যে মারা গেছে ১১ হাজার ৬২৫ জন। আর সুস্থ হয়েছে ৬৭ হাজার ৩৬৪ জন।

এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ২ লাখ ৮৭ হাজার ২৯৩ জন।এছাড়া এই ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৪২ লাখ ৫৪ হাজার ৮০০ জনের শরীরে।এবং এরই মধ্যে ২১২টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস।

বিজ্ঞাপন

আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ লাখ ২৭ হাজার ১৪৪ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন ২৪ লাখ ৩৮ হাজার ২১৩ জন। এদের মধ্যে ৪৬ হাজার ৯৩৯ জনের অবস্থা গুরুতর।

মহামারির চেয়েও ভয়ংকর রূপ নিয়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রথম শনাক্ত হয়। তবে এপ্রিলের শেষ থেকে মে মাসের শুরুতে চীনে করোনায় কোনো রোগী মারা যাওয়ার রেকর্ড না থাকলেও ১১ মে’ সেই উহান শহরে হঠাৎ করেই সন্ধান মিলেছে নতুন পাঁচ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর।

রোববার উহানে সর্বপ্রথম ৮৯ বছর বয়সী এক বৃদ্ধা শরীরে কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। ওই বৃদ্ধার স্বামী করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। এরপরই তিনি যে অ্যাপার্টমেন্টে থাকেন সেখানকার সব বাসিন্দার করোনা পরীক্ষা করে আরও ৪ জনের পজিটিভ পাওয়া যায়।

চীনে এখন পর্যন্ত ৮৩ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যাদের মধ্যে ৪ হাজার ৬৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।