চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনার আঘাত সামলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে চীনের অর্থনীতি

করোনাভাইরাস মহামারীর প্রভাব সামলে আবার ঘুরে দাঁড়াচ্ছে চীনের অর্থনীতি।  দেশটির সরকারি তথ্যমতে, বিশ্বের দ্বিতীয় সর্ববৃহৎ অর্থনীতির দেশ চীনে গত জুলাই থেকে সেপ্টেম্বরে প্রবৃদ্ধি ৪.৯ শতাংশ, যা আগের বছরের এই সময়ের সমান। যদিও এই সংখ্যাটা অর্থনীতিবিদদের প্রত্যাশিত ৫.২ শতাংশের তুলনায় কম।

সর্বশেষ জিডিপি তথ্যের ভিত্তিতে চীন এখন বৈশ্বিক অর্থনীতি পুনরুদ্ধার কর্মের নেতৃত্ব দিচ্ছে। ২০২০ সালের শুরুতে করোনাভাইরাস মহামারী প্রথম দেওয়ার পরে চীনের অর্থনীতিতে যে ধাক্কা এসেছিলো তাতে ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধিও প্রত্যাশিত ছিলো না।

বিজ্ঞাপন

বছরের প্রথম তিন মাসে যখন দেশব্যাপী ফ্যাক্টরি ও উৎপাদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ করে দেওয়া হলে চীনের অর্থনীতিতে ৬.৮ শতাংশ ধস দেখা দেয়। ১৯৯২ সালে চীনের অর্থনীতির ত্রৈমাসিক পরিসংখ্যান রেকর্ড করা শুরু করার পরে তখনই প্রথম চীনের অর্থনীতির সংকোচন দেখা গিয়েছিলো।

বিজ্ঞাপন

সোমবার প্রকাশিত মূল অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পরিসংখ্যান থেকে বোঝা যায় চীনের পুনরুদ্ধারের গতি বাড়ছে। যদিও বিশেষজ্ঞরা প্রায়শই অর্থনৈতিক তথ্যের যথার্থতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

হংকংয়ের আইএনজির প্রধান চীনা অর্থনীতিবিদ আইরিস পাং বলেন, সংখ্যাটা খারাপ নয়। চীনে কর্মসংস্থান সৃষ্টি বেশ স্থিতিশীল, ফলে উপাদানের ব্যবহার আরো বাড়ে।

সেপ্টেম্বর থেকে চীনের বাণিজ্য পরিসংখ্যানও শক্তিশালী পুনরুদ্ধারের ইঙ্গিত দিচ্ছে।  গত বছরের সেপ্টেম্বরের তুলনায় এবছর রপ্তানি ৯.৯ শতাংশ এবং আমদানি ১৩.২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

গত দুই দশক ধরে চীনে গড়ে ৯ শতাংশ প্রবৃদ্ধি দেখা দিয়েছে, যদিও ধীরে ধীরে তা কমে আসছে। এবছর করোনাভাইরাস মহামারী এই প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যকে বাধাগ্রস্ত করেছে। তাছাড়া চীন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে বাণিজ্যযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছে যা সাম্প্রতিক মাসগুলিতে আরো বেড়েছে।