চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাস: ভ্যাকসিনসহ নানা বিষয়ে বিল গেটস ও মোদির আলোচনা

বৈশ্বিক মহামারী কোভিড-১৯ করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনসহ নানা বিষয়ে আলোচনা করেছেন বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি বিল গেটস এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বৃহস্পতিবার এক ভিডিও কনফারেন্সে তাদের আলোচনা হয় বলে টুইটারে নিশ্চিত করেছেন নরেন্দ্র মোদি নিজেই।

বিজ্ঞাপন

এনডিটিভি বলছে, এই মহামারী মোকাবেলায় বৈজ্ঞানিক গবেষণাসহ বৈশ্বিক সমন্বয়ের গুরুত্ব নিয়েও আলোচনা করেন তারা।

বিজ্ঞাপন

বিল গেটস এবং প্রধানমন্ত্রী মোদি একমত হয়েছেন যে, ভারত পুরো বিশ্বের সঙ্গে করোনা পরিস্থিতিতে একসঙ্গে কোমর বেঁধে লড়াই করছে। এই প্রাণঘাতি রোগকে রুখে দিতে ভারত সদিচ্ছা দেখিয়েছে বলে প্রশংসা করেছেন বিল গেটস।

বিজ্ঞাপন

নরেন্দ্র মোদি টুইটে লেখেন, বিল গেটসের সঙ্গে অনেকক্ষণ ধরে আলাপ-আলোচনা করলাম। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে কীভাবে লড়াই করছে ভারত, তা নিয়ে যেমন আলোচনা করেছি তেমনই কোভিড- ১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে গেটস ফাউন্ডেশনের কাজ নিয়েও আলোচনা করেছি। পাশাপাশি এই পরিস্থিতিতে প্রযুক্তির ভূমিকা, বিভিন্ন গবেষণা এবং এই মহামারী নিরাময়ের জন্য ভ্যাকসিন তৈরির বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে আমাদের মধ্যে।

করোনা মোকাবেলায় বিশ্বের উন্নত দেশগুলির সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করছে ভারত। করোনা মোকাবেলায় সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতের এমন ভূমিকার  উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন বিল গেটস।

বিল গেটস টুইটারে লেখেন, বিশ্বব্যাপী করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কথা হলো। তাকে ধন্যবাদ জানাই এই আলোচনা ও করোনা মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ অংশীদারিত্বের জন্য। আজ গোটা বিশ্ব এই মহামারীর দাপট কমাতে কাজ করছে। টিকা তৈরি, চিকিৎসা ব্যবস্থা সমস্ত কিছুতেই ভারত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

বিল গেটস যখন ভারতের উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় ন্যস্ত তখন করোনাভাইরাস নিয়মিত আঘাত করে চলেছে। নিয়মিত বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ১০০ জন। আক্রান্ত হয়েছে নতুন আরও ৩ হাজার ৯৬৭ জন। ভারতে করোনায় মোট আক্রান্ত হয়েছে ৮১ হাজার ৯৯৭। মৃত্যু হয়েছে মোট ২ হাজার ৬৪৯ জনের।