চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাস: বিশ্বব্যাপী শনাক্তের সংখ্যা কোটি ছাড়ালো, মৃত্যু ৫ লাখ

বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনাভাইরাস এ আক্রান্ত শনাক্তের সংখ্যা ১ কোটি ছাড়িয়ে গেছে। ওয়ার্ল্ডোমিটার এর তথ্য অনুযায়ী, রোববার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১ কোটি ৮১ হাজার ৪৭৭ জন। আর এসময়ে সারাবিশ্বে মারা গেছেন ৫ লাখ ১ হাজার ২৯৮ জন। সুস্থ হয়েছেন ৫৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৭ জন।

এর মধ্যে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল, পেরু, চিলি, মেক্সিকোতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার বেশি। আর সাথে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ভারত, যুক্তরাজ্য, তুরস্ক, পাকিস্তান, বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশ।

বিজ্ঞাপন

এছাড়াও পরিসংখ্যান বলছে, ইরানেও হঠাৎ করে নতুন আক্রান্ত এবং মৃত্যু সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে।

বিজ্ঞাপন

এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্ত হয়েছেন ২৫ লাখ ৯৬ হাজার ৫৩৭ জন আর মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ২৮ হাজার ১৫২ জনের। ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৪৩ হাজার ৫৮১ জন এবং প্রাণহানি ঘটেছে ৫১২ জনের।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্তের দেশ ব্রাজিল। সেখানে ১৩ লাখ ১৫ হাজার ৯৪১ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যুর দিক দিয়েও দেশটি দ্বিতীয়। রোববার পর্যন্ত সেখানে মারা গেছে ৫৭ হাজার ১০৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৩৫ হাজার ৮৮৭ এবং মৃত্যু ৯৯৪ জন।

বিজ্ঞাপন

আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় রাশিয়া। এখন পর্যন্ত ৬ লাখ ২৭ হাজার ৬৪৬ জন করোনায় আক্রান্ত দেশটিতে। তবে মৃত্যু তুলনামূলক কম। রাশিয়ায় মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৯৬৯ জনের। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৮৮ জন।

ভারত আক্রান্তের সংখ্যায় এখন চতুর্থ। রোববার সকাল পর্যন্ত ৫ লাখ ২৯ হাজার ৫৭৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে দেশটিতে। মৃত্যুর সংখ্যায় অষ্টম ভারত, এখন পর্যন্ত সেখানে ১৬ হাজার ১০৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৪১৪ জন।

এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় ল্যাটিন আমেরিকার দেশ মেক্সিকো মৃত্যুর রেকর্ডে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। দেশটিতে একদিনে মারা গেছে ৭১৯ জন, চিলিতে ২৭৯, পেরুতে ১৯৬, ইরানে ১২৫ এবং যুক্তরাজ্যে ১০০ জন।

করোনা নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে এখনো কোনো সুসংবাদ আসেনি। তারা বলছে, করোনার ভয়াবহতা এখনো আছে এবং আরো বেশি ঝুঁকি নিয়ে তা ছড়াচ্ছে।

তবে এই হুমকির মধ্যেই কিছু সংবাদ আসছে যা মানুষকে কিছুটা হলেও স্বস্তি দিচ্ছে। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় গত বৃহস্পতিবার থেকে মানুষের শরীরে করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়াল শুরু করেছে। এর আগে বিভিন্ন পশুর শরীরে করোনা ভ্যাকসিনের সফল ট্রায়াল সম্পন্ন করে যুক্তরাজ্যের এই গবেষক দল।