চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাসের ক্ষতি মোকাবেলায় পৌনে ৭৩ হাজার কোটি টাকা

করোনাভাইরাসে দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতি মোকাবেলায় বিভিন্নখাতে ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলন করে এই প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করে তিনি বলেন, ‘মানুষের সুরক্ষায় সব ধরনের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। বিনামূল্যে খাদ্য, ১০ টাকা কেজি করে চাল ও বিভিন্ন ভাতা দেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন

‘‘ভাইরাস মোকাবেলায় তিন স্তরের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে সরকার। বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়ার আগেই আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছি। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থতার হার বেশি।’’

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী যোগ করেন, করোনা পরিস্থিতিতে মুদ্রা সরবরাহ বৃদ্ধি ও বাজার ব্যবস্থায় বিশেষ নজর দেওয়া হবে। শিল্প উদ্যোক্তাদের জন্য স্বল্প সুদে বড় অঙ্কের ঋণ প্রদান করা হবে। তাদের জন্য ৪ শতাংশ সুদে ৩০ হাজার কোটি টাকা ঋণ সুবিধা দেওয়া হবে। ক্ষুদ্র, কুটির ও মাঝারি শিল্পের প্রসারে ৪ শতাংশ সুদে ২০ হাজার কোটি টাকার ঋণ সুবিধা দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

আসন্ন শবে বরাত এবং বাংলা নববর্ষ নিয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলা নববর্ষে ঘরে বসে বা মিডিয়ার মাধ্যমে উৎযাপন করতে পারেন। শবে বরাতে ঘরে বসে আল্লাহর কাছে দোয়া করে। যেন বাংলাদেশসহ সারাবিশ্ব এই মহামারী থেকে রক্ষা পায়।’’

সবাইকে সততার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, কেউ কষ্ট পাক সেটা আমরা চাই না। এই প্রণোদনার সুফল সবাই পাবেন। তবে আমি বলতে চাই, সবাই সততার সঙ্গে কাজ করেন। কেউ এর অপব্যবহার বা দুর্নীতি করবেন না। সঠিকভাবে কাজ করলে দেশের কেউ ভোগান্তিতে পড়বে না।’’

এর আগে গত ২৫ মার্চ জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়ে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপ তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। ওইদিন দেশের রপ্তানিমুখী শিল্পের জন্য ৫ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা দেন।

তার কয়েকদিন পর করোনাভাইরাসের প্রদুর্ভাব থেকে বাঁচতে ৩১টি নির্দেশনা দিয়ে তা মেনে চলতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।