চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাস: ইটালিতে শিথিল হচ্ছে লকডাউন

৭ সপ্তাহ আগে ইটালিতে লকডাউন শুরু হয়। মার্চের পরে এখন মৃত্যুর হার কিছুটা কমায় কঠোর নিষেধাজ্ঞাতে খানিকটা শিথিলতা আনতে যাচ্ছে দেশটি।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ কোঁতে বলেন, আসছে ৪ মে থেকে এসব শিথিল করা হবে। কেউ কেউ মাস্ক পরে তাদের আত্মীয়ের সঙ্গেও সীমিত পরিসরে সাক্ষাৎ করতে পারবে। পার্ক খোলা হবে। তবে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুলে ক্লাস শুরু হবে না।

বিজ্ঞাপন

গত ১৪ মার্চের পর রোববার দেশটিতে ২৬০ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারায়। সেটাই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে কম সংখ্যা। ইটালিতে মোট করোনা আক্রান্ত ১৯৭,৬৭৫ জন। সংখ্যাটাও বর্তমানে কমছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এক টেলিভিশন ভাষণে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বলেন. মানুষ নিজের এলাকায় চলাচল করতে পারবে। কিন্তু অন্য অঞ্চলে যেতে পারবে না। সৎকার কাজও করা যাবে তবে তাতে ১৫ জনের বেশি তাতে অংশ নেয়া যাবে না। আর সেটা ঘরের বাইরে করতে হবে। অ্যাথলেটরা তাদের প্রশিক্ষণ শুরু করতে পারবে। বার ও রেস্টুরন্ট থেকে গিয়ে খাবার আনা যাবে। এখনকার মতো ডেলিভারী নিতে হবে না। হেয়ারড্রেসার, সেলুন, বার, রেস্টুরেন্ট পুরোপুরি ১ জুন থেকে খোলা হবে। ১৮ মে থেকে আরো বেশি ছোট দোকান খোলা হবে। খেলার দলগুলো গ্রুপ ট্রেনিং শুরু করতে পারবে ১৮ মে থেকে।

দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২৬ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছে। ইউরোপের সবচেয়ে বেশি মৃত্যু সেখানেই। গত ৯ মার্চ থেকে দেশটিতে লকডাউন শুরু হয়।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেক ছড়িয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস। পরে বিশ্বব্যাপী সেটা মহামারী রূপ ধারণ করে। বর্তমানে সারাবিশ্বে প্রায় ৩০ লাখ মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত আর প্রাণ হারিয়েছে ২ লাখেরও বেশি মানুষ।