চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাস: ইটালিতে বাংলাদেশি সেবিকার মৃত্যু

ইটালিতে করোনা রোগিদের সেবা দিয়ে প্রথম বাংলাদেশী সেবিকা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যূ বরণ করেছেন ( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

ইটালির যে স্থানটি থেকে করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি সেই লোম্বাদিয়া প্রদেশের মিলান শহরের একটি হাসপাতালে সেবিকা হিসেবে কাজ করতে বাংলাদেশি নাজমুন নাহার।

বিজ্ঞাপন

২০০৭ সালে সরকারী ব্যবস্থাপনায় ১৮ জন বাংলাদেশি সেবিকা হিসেবে নিয়োগ পেয়ে ইতালিতে আসে। নাজমুন নাহার ছিলেন তাদের মধ্যে একজন। নাজমুন নাহার মহামারী করোনার শুরুর আগে বাংলাদেশ থেকে ছুটি কাটিয়ে ইটালি ফিরেই কাজে যোগদান করেন। শুরু হয় মহামারী করোনার তাণ্ডব। শুরু থেকেই তিনি করোনায় আক্রান্ত রোগীদের সেবা দিয়ে আসছেন।

বিজ্ঞাপন

যখন ইতালীতে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা স্বাভাবিক তখন নাজমুন নাহার (৪৫) করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ১৭ই জুন মৃত্যু বরন করেন। মৃত্যু কালে তার স্বামী বাংলাদেশে আটকা পড়ে ছিলেন এবং গত ২৩ তারিখ একটি চাটার্ড বিমানে ইটালি পৌছেছেন। ১৭ বছরের একমাত্র কন্যা সন্তানটিও হোম কোয়ারেন্টাইন আছে। আগামী ২৫ জুন ৩.৩০ টায় বেরগামো শহরে মৃতের জানাজা হওয়া কথা রয়েছে। তবে মরহুমার লাশ ভারেজ রিজিওনাল হাসপাতালের হিম ঘরে রাখা আছে।

নিহত সেবিকা নাজমুন নাহারের বাড়ি গাজীপুরের কাপাসিয়ার। ২০১৯ সালে নাজমুন নাহার ছুটিতে বাংলাদেশে গিয়ে সেবিকার উপর উচ্চতর ডিগ্রী অর্জন করে আবার ইটালি ফিরে আসেন। কান্না জড়িত কন্ঠে তার সহকর্মীরা বিস্তারিত জানিয়েছেন।

এমদাদুল হক, ইটালি প্রতিনিধি