চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাসকে ‘প্রতীকী বিদায়’ জানিয়ে চেক প্রজাতন্ত্রে অনুষ্ঠান

করোনাভাইরাস মহামারীর অবসান হতে এখনও অনেক সময় বাকী বলে চলতি সপ্তাহে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) সতর্কতা জানালেও করোনাভাইরাসকে ‘প্রতীকী বিদায়’ জানাতে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে চেক রিপাবলিক।

মঙ্গলবার দেশটির রাজধানী প্রাগের চার্লস ব্রিজে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ৫০০ মিটার (এক হাজার ৬৪০ ফুট) দীর্ঘ একটি টেবিল ঘিরে বসে হাজারও অতিথি বাড়ি থেকে আনা খাবার ও পানীয় শেয়ার করেন।

বিজ্ঞাপন

অতিথিদের তাদের প্রতিবেশীদের সঙ্গে খাবার বিনিময় করতে বলা হয় আর এ অনুষ্ঠানে সামাজিক দূরত্ব বিধিনিষেধ কার্যকর ছিল না বলে জানিয়েছে বিবিসি।

বিজ্ঞাপন

সুন্দর শহর হিসেবে খ্যাত প্রাগে পর্যটকদের উপস্থিতি কম থাকায় এ ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

এ অনুষ্ঠানের বিভিন্ন ছবিতে লোকজনকে একসঙ্গে বসে পান করতে ও স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনা উপভোগ করতে দেখা যায়।

বিজ্ঞাপন

পার্টির আয়োজক ও শহরের একটি ক্যাফের মালিক আন্দেই কোবজা বলেন, ‘তারা একত্র হতে ভয় পাচ্ছেন না, প্রতিবেশীর কাছ থেকে এক টুকরো স্যান্ডুউইচ নিতে শঙ্কিত হচ্ছেন না, এটি দেখাতেই লোকজনকে একত্র করে করোনাভাইরাস সংকটের অবসান উদযাপন করতে চেয়েছি আমরা।’

অনুষ্ঠানের আসন সংরক্ষিত ছিল এবং সবগুলোই পূর্ণ হয়ে গিয়েছিল বলে ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

এখানে অংশগ্রহণকারী গালিনা কোমহেনকো ক্রেইচিকোভা জানান, ফেসবুকে তিনি এই অনুষ্ঠানের খোঁজ পান আর ভাবেন ‘এটি আকর্ষণীয় হবে।

‘রাতের পালার কাজ শেষে করে এখানে এসেছি তাই আমি কোনোকিছু বানানোর সুযোগ পাইনি, কিন্তু বাড়িতে কিছু স্ন্যাক্সস ও ওয়াইন ছিল সেগুলো নিয়ে এসেছি’, বলেন তিনি।

এক কোটি মানুষের দেশ চেক রিপাবলিকে ১২ হাজারেরও কিছু কম লোকের দেহে করোনভাইরাস শনাক্ত হয়েছে আর মারা গেছেন প্রায় ৩৫০ জনের মতো। দ্রুত লকডাউন আরোপ করে দেশটি মহামারীর প্রকোপ এড়াতে সক্ষম হয়।

গত সপ্তাহে সরকার জনসমাবেশে হাজার জনের উপস্থিতি অনুমোদন করে। সুইমিং পুল, জাদুঘর, চিড়িয়াখানা ও প্রাসাদগুলো দর্শনার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়। এক মাসের জন্য দোকানের ভিতরে ক্রেতাদের সেবা দেওয়ার জন্য রেস্তোরাঁ, বার ও পাবগুলোকে অনুমতি দেয়।