চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Cable

করদাতার সংখ্যা এক কোটিতে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য

Nagod
Bkash July

কর প্রদানে মানুষের আগ্রহ বেড়েছে। গত দুই বছর ধরে রিটার্ন দাখিল ৪০ শতাংশ হারে বাড়ছে। ২০১৪ সালে করদাতা ছিল ১২ লাখ। মাত্র ৪ বছরে এই সংখ্যা তিনগুণের বেশি বেড়ে ৩৮ লাখে উত্তীর্ণ হয়েছে। এই সংখ্যা এক কোটিতে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য রয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের।

Reneta June

শুক্রবার রাজধানীর সেগুনবাগিচার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ভবনে আয়কর দিবসের এক অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ তথ্য জানান।

অনুষ্ঠানে এনবিআর সদস্য (আন্তর্জাতিক করনীতি) কালিপদ হালদার বলেন, গত বছর করদাতা ছিল ৩২ লাখ, এ বছর তা হয়েছে ৩৮ লাখ হয়েছে। ২০১৪ সালে করদাতার সংখ্যা ছিল ১২ লাখ। মাত্র ৪ বছরে করদাতার সংখ্যা তিনগুণের বেশি হয়েছে। প্রকৃত কর আদায় ১০ বছরে পাঁচগুণ হয়েছে।

তিনি বলেন, এখন এনবিআরের লক্ষ্য করদাতার সংখ্যা এক কোটিতে উত্তীর্ণ করা। সামাজিক ভারসাম্য ও দায়িত্ব বজায় রাখার জন্য আয়কর দিতে হয়। করদাতাদের ভেতর আয়কর নিয়ে আগে নেতিবাচক ধারণা ছিল। কিন্তু আয়কর মেলা ও দিবস পালনের মাধ্যমে তা দূর হয়েছে।

এনবিআরের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম বলেন, সব মিলিয়ে বাংলাদেশে এখন কর আদায়ের পরিমাণ ৩০ বিলিয়ন ডলার। কর আদায়ের পরিমাণ দশগুণ বাড়ানো গেলে উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছানো সম্ভব।

তিনি বলেন, রিটার্ন দাখিল গত দুই বছর ধরে ৪০ শতাংশ হারে বাড়ছে। সক্রিয় করদাতা এখন ১৫ লাখ, যখন তা ১ কোটি হবে তখন দেশের আরও বেশি উন্নয়ন হবে। কর অনুপাত ১২ শতাংশে নিয়ে যেতে পারলে অর্থনীতি মজবুত হবে। সেবা প্রদানকে জনবান্ধব করতে এনবিআরকে ভবিষ্যতে আরও ডিজিটাল করা হবে।

আয়কর প্রদানে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রতি বছর ৩০ নভেম্বর দিবসটি পালন করে থাকে এনবিআর। মেলার মতো এবার দিবসটির স্লোগান ‘উন্নয়ন ও উত্তরণ, আয়করের অর্জন’। আর প্রতিপাদ্য ‘আয়কর প্রবৃদ্ধির মাধ্যমে সামাজিক ন্যায় বিচার ও ধারাবাহিক উন্নয়ন নিশ্চিতকরণ’।

অন্যান্য বছরের মতো এবারও আয়কর দিবসের অনুষ্ঠানে দেশের মিডিয়া জগতের তারকারা অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে চিত্রনায়ক ফেরদৌস বলেন, কর প্রদানে সবাইকে সচেতন হতে হবে। বিশেষত তরুণদের।

গায়ক শুভ্র দেব বলেন, বাংলাদেশে এখন কর প্রদানের পরিবেশ খুবই ভালো। নিজেদের টাকা দিয়ে আমরা পদ্মা সেতু করতে পারলে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু টাওয়ারও করতে পারব। আর তা করতে চাইলে সবাইকে কর দিতে হবে।

চিত্রনায়ক রিয়াজ বলেন, অর্থমন্ত্রী বলেছেন কর দেয়া বাহাদুরি, কর দেয়ার মাধ্যমে আমিও তা মনে-প্রাণে বিশ্বাস করি। পদ্মাসেতুর কোনো একটি রড আমার টাকায় কেনা তা ভাবতেই মনেপ্রাণে গর্ব করি। কর দেয়া অভ্যাসের ব্যাপার। তাই সবাইকে এই অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।

এনবিআর সদস্য (আয়কর) জিয়া উদ্দিন মাহমুদসহ এনবিআরের কর্মকর্তারা আয়কর দিবসের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন৷

BSH
Bellow Post-Green View