চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কম তথ্য সংগ্রহে ফেসবুককে জার্মানির আদেশ

জার্মানির এক নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফেসবুককে বলেছে, তারা অ্যাপ ও ওয়েবসাইটের পেছনে বেশি বেশি তথ্য গ্রাহকের অনুমতি ছাড়া নিতে পারবে না।

ফেসবুকের বর্ধিত কার্যক্রম বিষয়ে অবগত না থাকার তথ্য পাওয়ার পর নিরাপত্তাপ্রহরী সংস্থাটি এই বক্তব্য দেয়।

ফেসবুকের অন্যান্য অ্যাপ যেমন ইন্সটাগ্রাম হয়ে তথ্য সংগ্রহের ব্যাপারেও তারা এই কথা বলেছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

তবে মার্কিন এ সংস্থাটি জানিয়েছে তারা আপিল করবে। বিশেষ করে ফেসবুক জানিয়েছে, তারা বিভিন্ন সেবার জন্য তথ্য সংগ্রহ করে সেটা ঠিক। কিন্তু সেটা ব্যবহারকারীর মূল ফেসবুকের সঙ্গে সংযুক্ত করে না। যদি না ওই সদস্য স্বেচ্ছায় অনুমতি না দেয়। তৃতীয় পক্ষের কোনো ওয়েবসাইট থেকে তথ্য সংগ্রহ করা এবং সেটাকে ফেসবুকের সঙ্গে তখনই সম্পৃক্ত করা হয় যদি গ্রাহক সরাসরি অনুমতি দেয়।

জার্মানির এই নিয়ন্ত্রক সংস্থা যুক্ত করে, বক্সে বাধ্যতামূলক টিক দেওয়ার যে রীতিটি রয়েছে কোম্পানির টার্ম হিসেবে সেটা এই ধরনের তথ্য বিশ্লেষণের জন্য যথেষ্ট নয়।

রুল করা কোম্পানিটি শুধুমাত্র জার্মানিতে সংস্থাটির কার্যক্রম নিয়ে কথা বলেছে, কিন্তু অন্যান্য প্রভাবকদেরও প্রভাবিত করার বিষয়ে ভাবছে।

ফেসবুকের দাবি ফেডারেল কার্টেল অফিস বেশি পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বলছে। তাদের হাতে একমাস সময় আছে নিজেদের পক্ষে সাফাই গাওয়ার। তা না হলে যদি সেই আদেশ বহাল থেকে যায়, কোম্পানির অবশ্যই টেকনিকাল সমাধান আনতে হবে চার মাসের মধ্যে।