চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কমনওয়েলথ গেমস: বাছাইপর্ব খেলতে হবে সালমা-রুমানাদের

কমনওয়েলথ গেমসে প্রথমবারের মতো হতে যাওয়া মেয়েদের ক্রিকেটে সরাসরি খেলার সুযোগ হয়নি বাংলাদেশের। বাছাইপর্ব খেলে নিজেদের যোগ্যতা দেখিয়ে অংশ নিতে হবে সালমা-রুমানাদের। ২০২২ বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমস টি-টুয়েন্টি ইভেন্টে সরাসরি খেলবে আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ ছয়টি দেশ। বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থান নবম।

বাছাইপর্বে বাংলাদেশের অংশ নেওয়ার বিষয়টি চ্যানেল আই অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন বিসিবির উইমেনস উইংয়ের ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের ম্যানেজার তৌহিদ মাহমুদ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

আয়োজক ইংল্যান্ডের সঙ্গে রয়েছে ভারত, অস্ট্রেলিয়া, নিউজ়িল্যান্ড, পাকিস্তান, সাউথ আফ্রিকা। র‍্যাঙ্কিংয়ের ছয় নম্বরে থাকায় সুযোগ পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওই জায়গায় নিজেদের মধ্যে বাছাই পেরিয়ে ক্যারিবিয়ান দীপপুঞ্জের একটি দেশ অংশ নেবে।

আইসিসি জানিয়েছে, ১ এপ্রিল পর্যন্ত ফলাফলের ভিত্তিতে দলগুলির যে র‌্যাঙ্কিং তৈরি হয়েছে, তারাই কমনওয়েলথ গেমসে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। আগামী বছর ২৮ জুলাই শুরু হয়ে ক্রিকেট আসর শেষ হবে ৮ আগস্ট।

বিজ্ঞাপন

এক বিবৃতিতে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে, ‘যোগ্যতা অর্জনের যে মাপকাঠি তৈরি করা হয়েছে, সেখান থেকেই ঠিক হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দ্বীপপুঞ্জের কোনো দেশ কমনওয়েলথ ক্রিকেট আসরে অংশ নেবে। ২০২২ সালের ৩১ জানুয়ারি শুরু হবে বাছাইয়ের টুর্নামেন্ট। এর বিজয়ী দল অংশ নেবে মূল প্রতিযোগিতায়।’

পরবর্তী সময়ে এই টুর্নামেন্টের বিস্তারিত জানাবে আইসিসি। বাছাইপর্ব কোথায় হবে কয়টি দল অংশ নেবে তা চূড়ান্ত করেনি আইসিসি।

সাতটি দল চূড়ান্ত হয়ে যাওয়ায় বাছাইপর্ব খেলতে হবে র‌্যাঙ্কিংয়ে আটে থাকা শ্রীলঙ্কা, নয় নম্বরে থাকা বাংলাদেশকে। শক্তির বিচারে এই দুটি দলের মাঝেই হতে পারে মূল লড়াই। র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ ১২’র বাকি তিন দল হলো-আয়ারল্যান্ড, থাইল্যান্ড, জিম্বাবুয়ে।

কমনওয়েলথ গেমসে এই প্রথমবার মেয়েদের ক্রিকেট অন্তর্ভুক্ত হলো। তবে এই মঞ্চে ক্রিকেট আগেও একবার যুক্ত হয়েছিল। ১৯৯৮ সালে কুয়ালালামপুরে হয়েছিল ছেলেদের ক্রিকেট।

বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমসে মেয়েদের টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটের সবই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে হবে এজবাস্টনে। চলতি বছরের শেষের দিকে ম্যাচগুলির টিকিট অনলাইনে বিক্রি হবে বলে এখন পর্যন্ত ঠিক রয়েছে।