চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কথা রেখেছেন জয়, কৃতজ্ঞ শিল্পী আকবর

Nagod
Bkash July

শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি হয়েছিলেন গায়ক আকবর। পরে গুরুতর অসুস্থতার খবর জেনে আকবরের সু-চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Reneta June

চ্যানেল আই অনলাইনের মাধ্যমে আকবরের শারীরিক অবস্থার খোঁজ পেয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন অভিনেতা ও উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়। তিনি আকবরের চিকিৎসায় অর্থ সহায়তা দিতে মানবিকতার জায়গা থেকে এগিয়ে আসেন।

আকবরের চিকিৎসায় ৫০ হাজার টাকা দিয়ে সাহায্য করেন শাহরিয়ার নাজিম জয়। গেল সপ্তাহে অনেকটা গোপনে হাসপাতালে আকবরের হাতে টাকার চেক পৌঁছে দেন জয়। প্রায় দুমাস চিকিৎসাধীন থাকার পর অনেকটা সুস্থ হয়ে সোমবার সকালে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন আকবর। তার স্ত্রী কানিজ ফাতিমা সীমা চ্যানেল আই অনলাইনকে খবরটি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, হাসপাতালে ভর্তি হতে প্রধানমন্ত্রী সমস্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেন। আগেও তিনি অনুদান দিয়েছিলেন। তার প্রতি আমরা চির কৃতজ্ঞ। রবিবার সংবাদ সম্মেলন করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিস্তারিত জানিয়েছেন। চিকিৎসার আনুসাঙ্গিক খরচ হিসেবে অনেক টাকা খরচ হয়। সেই টাকা আমাদের কাছে ছিল না। জয় ভাই ৫০ হাজার দিয়ে যে সাহায্য করেছেন, কী পরিমাণে যে উপকার হয়েছে বলে বোঝাতে পারবো না।

আকবর বলেন, সাত মাস ঘরে শোয়া ছিলাম। আমার কাছে মোটেও টাকা ছিল না। তখন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে দিশেহারা অবস্থা।

তিনি বলেন, অসুস্থ হওয়ার পর শাহরিয়ার নাজিম জয় ভাই খোঁজ খবর নিয়েছিলেন। তখন বলেছিলেন তার সামর্থের মধ্যে থেকে পাশে থাকবেন। উনি তার কথা রেখেছেন। কিন্তু এর আগে মিডিয়ার অনেকেই আমাকে সাহায্য করবে বলে কেউ কথা রাখেনি।

শাহরিয়ার নাজিম জয় বলেন, নিজের সামর্থ্যের মধ্যে অনেকের পাশে দাঁড়াই। কিন্তু প্রকাশ করতে প্রস্তুত থাকি না। আমি আমার সামর্থের মধ্যে আকবরকে টাকাটা দিয়েছি। সে সুস্থ হয়ে আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরুক, গান করুক এটাই চাওয়া থাকলো।

গেল বছর আকবরের নিজ এলাকা যশোর গিয়েছিলেন। সেখানে সাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে পা ভেঙে যায়। তারপর থেকে হাঁটাচলা করতে করতে পারতেন না ইত্যাদির মঞ্চ থেকে উঠে আসা এই শিল্পী। তিনি জানান, আগে থেকে কিডনির সমস্যা ছিল। শরীরে ঘা ছিল। বছর দুয়েক আগে অবস্থা চরম খারাপ হওয়ায় চিকিৎসা নিয়ে ভারতে গিয়েছিলেন। এরমধ্যে পা ভেঙে যাওয়ায় তিনি অচল হয়ে যান। আকবর বলেন, বর্তমানে তার বাম পায়ে রড দিয়ে যুক্ত করা। খুঁড়িয়ে চলতে হচ্ছে তাকে।

BSH
Bellow Post-Green View