চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কতদিন নিষিদ্ধ হতে পারেন মেসি?

লাতিন আমেরিকান ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা কনমেবলের সমালোচনা করে বড় ধরনের বিপদের মুখে পড়তে যাচ্ছেন লিওনেল মেসি। কনমেবলের বিপক্ষে দুর্নীতির অভিযোগ তোলায় দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

সদ্য শেষ হওয়া কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির বিপক্ষে বিতর্কিত লাল কার্ড দেয়া হয় মেসিকে। ম্যাচের পর প্রকাশ্যে রেফারির সমালোচনা করার পাশাপাশি কনমেবলের বিপক্ষে দুর্নীতির অভিযোগও তোলেন লিও।

বিজ্ঞাপন

মেসির সেই বক্তব্য ভালোভাবে নেয়নি কনমেবল। বিবৃতিতে মেসির অভিযোগকে ভিত্তিহীন ও অগ্রহণযোগ্য বলে আখ্যায়িত করেছে সংস্থাটি।

বিজ্ঞাপন

কনমেবলের আচরণবিধিতে লাতিন আমেরিকান ফুটবল ফেডারেশন কিংবা এরসঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে অসম্মান করা যাবে না মর্মে উল্লেখ রয়েছে। কেউ অসম্মান করলে সর্বোচ্চ দুই বছরের নিষেধাজ্ঞার বিধান রাখা হয়েছে।

স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কা জানাচ্ছে, কনমেবলের সমালোচনা করায় মেসি দুই বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে নিষিদ্ধ হতে পারেন।

তেমন হলে আগামী বছর ঘরের মাঠে কোপা আমেরিকায় খেলা তো হবেই না মেসির, সঙ্গে ২০২২ বিশ্বকাপের বাছাইপর্বেও অংশ নিতে পারবেন না তিনি।

দুই বছর নিষিদ্ধ হবেন কি না সেটি সময়ই বলে দেবে। তবে কনমেবলের সমালোচনা করায় মেসি যে একাধিক ম্যাচ নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন সেটি মোটামুটি নিশ্চিত। পাঁচবারের ফিফা ব্যালন ডি’অর জয়ী খেলোয়াড়ের ভাগ্যে কী ঘটে সেটি জানতে হয়ত খুব বেশি অপেক্ষা করতে হবে না!