চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঐক্যফ্রন্টকে শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে থাকতে সম্পাদকদের পরামর্শ

দেশ ও গণতন্ত্রের স্বার্থে শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে থাকতে ঐক্যফ্রন্টকে পরামর্শ দিয়েছেন সম্পাদকগণ।  ‍শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর লেকশোর হোটেলে বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদকদের সঙ্গে ঐক্যফ্রন্টের বৈঠকে এ পরামর্শ দেয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

বৈঠক শেষে ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন বলেন: গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে এবং অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পরিবেশ নিশ্চিত করতে সম্পাদকদের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির আলোকে প্রিন্ট মিডিয়ার সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।

আমাদের সময় ডটকমের সম্পাদক সাংবাদিক নাইমুল ইসলাম বলেন: বৈঠকে দেশের চলমান নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে গণমাধ্যমের ভূমিকা কেমন হবে, অবাধ সংবাদ প্রচারের পরিবেশ কেমন হতে পারে এসব নিয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠকে থাকা ঐক্যফ্রন্টের একজন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন: সম্পাদকরে সঙ্গে আমাদের আলোচনা অত্যন্ত সফল হয়েছে। অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কিভাবে নিশ্চিত করা যায় সে বিষয়ে তারা নানা পরামর্শ দিয়েছেন। আমরা তাদের পরামর্শগুলোকে গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি।

জানা যায়, কিভাবে সকল হুমকি মোকাবেলা করে নির্বাচন চলাকালীন পরিস্থিতির সংবাদ অবাধে নিশ্চিত করা যায় সে বিষয়টি আলোচনায় গুরুত্ব পেয়েছে।

ঐক্যফ্রন্টের কর্মসূচির এ ধারাবাহিকতায় পরবর্তীতে ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সম্পাদক এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করবেন নেতৃবৃন্দ।

সভায় উপস্থিত ছিলেন দৈনিক মানবজমিনের সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, নিউ এজ সম্পাদক নূরুল কবির, আমাদের নতুন সময় সম্পাদক নাইমুল ইসলাম খান, সাপ্তাহিক সম্পাদক গোলাম মুর্তজা, সাপ্তাহিক বুধবার সম্পাদক আমির খসরু, ঢাকা ট্রিবিউন সম্পাদক জাফর সোবহান, ইনকিলাবের যুগ্ম সম্পাদক মুন্সি আবদুল মান্নান, এএফপির ব্যুরো চিফ শফিকুল আলম, বাংলাদেশ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের, যুগান্তরের চিফ রিপোর্টার মাসুদ করিম, সমকালের চিফ রিপোর্টার লোটন একরাম প্রমুখ।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষে শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন, বিএনপি মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন