চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লাদেনপুত্র হামজা নিহত হয়েছে বলে ট্রাম্পের দাবি

জঙ্গি গোষ্ঠী আল কায়েদার প্রতিষ্ঠাতা ওসামা বিন লাদেনের ছেলে হামজা বিন লাদেন নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শনিবার তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে হামজার নিহতের বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমসহ বেশ কয়েকজন সিনিয়র কর্মকর্তা নিশ্চিত করলেও ডোনাল্ড ট্রাম্প এই মৃত্যু নিয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানান।

বিজ্ঞাপন

এই প্রথম তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করলেন বলে ভারতের গণমাধ্যম এনডিটিভি তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, ওসামা বিন লাদেনের ছেলে ও আল কায়েদার শীর্ষ নেতা হামজা বিন লাদেন আফগানিস্তান-পাকিস্তান সীমান্তে যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবিরোধী এক অভিযানে নিহত হয়েছেন।

ট্রাম্প বলেন, হামজার মৃত্যুতে আল কায়েদা শুধু একজন দক্ষ নেতা এবং ওসামা বিন লাদেনের সঙ্গে কাল্পনিক যোগাযোগকেই হারালো না, উপরন্তু সংগঠনটির আভিযানিক ক্ষমতা হ্রাস পেল।

বিজ্ঞাপন

তবে কোন সময়ের অভিযানে হামজা নিহত হয়েছেন বিবৃতিতে সে বিষয়ে উল্লেখ করা হয়নি।

এর আগে জুলাইয়ের শেষ এবং আগস্টের শুরুর দিকে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমগুলো গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের বরাতে জানায়, গত দুই বছরের যেকোন সময় যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানে হামজা বিন লাদেনের মৃত্যু হয়েছে। গত মাসে দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এস্পারও হামজার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

১৯৮৯ জন্মগ্রহণ করেন হামজা বিন লাদেন। তার বাবা ১৯৯৬ সালে আফগানিস্তানে চলে এসে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন। সে সময় লাদেনের সঙ্গে হামজাও ছিলেন।

পরবর্তীতে আল কায়েদার একাধিক ভিডিওতেও সংগঠনটির নেতা ওসামা বিন লাদেনের সঙ্গে তাকে দেখা গেছে। তবে ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার এবং পেন্টাগনে হামলার পর আফগানিস্তান দখল করে নেয় মার্কিন বাহিনী।

কিন্তু লাদেন পালিয়ে পাকিস্তান চলে আসেন। ২০১১ সালে পাকিস্তানের আবোটাবাদে অভিযান চালিয়ে তাকে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ বাহিনী নেভি সিলের কমান্ডোরা।

Bellow Post-Green View