চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এবার বিদ্যানন্দের গরীবের ‘সুপার মার্কেট’

সমাজের চোখে যারা অসহায় তাদের জন্য খাবার বিতরণের পাশাপাশি শিক্ষাদান, এক টাকার আহার, চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল গড়ে তোলার পর এবার বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন নিয়ে এসেছে গরীবের সুপার মার্কেট।

এই মার্কেটের নাম ‘অদল বদল’। কারণ টাকা নয়, পণ্যের বিনিময়ে পণ্য নিতে হবে। অব্যবহৃত কাপড় কিংবা নিজের চাষ করা সবজি দিয়ে গরীব মানুষেরা প্রয়োজনীয় পণ্য সংগ্রহ করতে পারবে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

শনিবার সন্ধ্যায় বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবক সীরাজুম মুনিরা চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, “আপনার আবর্জনা, অন্যজনের সম্পদ” এই নীতি প্রচারে বিদ্যানন্দের এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ ‘গরীবের সুপার মার্কেট’।

বিজ্ঞাপন

‘‘এখানে কেউ শীত বস্ত্র রেখে তার প্রয়োজনীয় অন্য কিছু নিতে পারবেন, আবার কেউ যদি কোনো কিছু দিতে চান তাহলে এখানে ওই নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী দিতে পারবেন। ধরুন কেউ তার জমিতে কোন ফসল ফলিয়েছে, সে ফসল রেখে একটা শীতবস্ত্র নিয়ে গেল। অদল-বদলের মাধ্যমে এসব করা হবে। এতে করে কোন বস্তু বা জিনিস দ্বিতীয়বার ব্যবহারযোগ্য করা যাবে।’’

তিনি বলেন, চট্টগ্রামের সাগরিকা মোড়ে বিদ্যানন্দের মা ও শিশু হাসপাতাল প্রাঙ্গনে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য এই ‘গরীরের মার্কেট’টি শুরু হয়েছে। ঢাকাতে অবকাঠামোর কাজ শেষ, এখন বাকি শুধু পণ্য তোলা।’

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৩ এর ডিসেম্বর থেকে। ঘরোয়া পরিবেশে রান্না খাবার বিলিয়ে দেওয়া হতো গরিব অসহায়দের মাঝে। কিশোর কুমার দাশের উদ্যোগে কল্যাণমূলক এই কাজে যারা এগিয়ে এসেছেন তাদের প্রত্যেকেই কোনো রকম ব্যবসায়িক মনোভাবকে উহ্য রেখেই এসেছেন।

নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী অর্থ ও সময় দিয়ে প্রতিষ্ঠানটিকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। এভাবে প্রায় তিন বছর চলার পর ২০১৬ সালের নভেম্বর থেকে কিছু দাতা ফাউন্ডেশনটিতে অর্থ দান শুরু করেছে। প্রাপ্ত এ অর্থ সত্যিকার অর্থে কোন কাজে লাগছে তা পর্যবেক্ষণের জন্য অডিট কমিটি রয়েছে। এ ছাড়াও ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে অর্থ দানের আগে দাতাদের ফাউন্ডেশনের কাজকে স্বচক্ষে পরিদর্শন করার আবেদন থাকে।