চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এবার গণপূর্তের দুই প্রকৌশলীর ব্যাংক হিসাব তলব করেছে এনবিআর

সমালোচিত ঠিকাদার জি কে শামীমকে অবৈধ সুবিধা দেওয়ার অভিযোগে গণপূর্তের সাবেক দুই প্রকৌশলীর ব্যাংক হিসাব তলব করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (সিআইসি)। গণপূর্তের এই দুই প্রকৌশলী হলেন, সাবেক প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম ও অতিরিক্ত প্রকৌশলী আব্দুল হাই। এনবিআর সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, এই দুই সাবেক প্রকৌশলীর ব্যাংক লেনদেনের তথ্য চেয়ে মঙ্গলবার বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটকে (বিএফআইইউ) চিঠি দিয়েছে এনবিআর।

বিজ্ঞাপন

৫ কার্যদিবসের মধ্যে তাদের সব ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংককে চিঠি দিয়েছে এনবিআরের সিআইসি। একইসঙ্গে রফিকুল ও আব্দুল হাইয়ের আয়ের-ব্যয়ের হিসাব তদন্ত করতে অধিনস্ত করাঞ্চলকে নির্দেশ দিয়েছে সংস্থাটি।

তবে চিঠি পাওয়ার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক সরাসরি কিছু বলেনি।

জানা গেছে, গণপূর্তের সাবেক দুই প্রকৌশলীকে মোটা অঙ্কের টাকা ঘুষ দিয়ে জি কে শামীম টেন্ডার বাগিয়ে নিতেন। ঘুষের পরিমাণ দেড় হাজার কোটি টাকা বলে অভিযোগ উঠেছে। টেন্ডার পেতে শামীম বিভিন্ন সময়ে রফিকুলকে ঘুষ দিয়েছেন ১ হাজার ১০০ কোটি ও আব্দুল হাইকে দিয়েছেন ৪০০ কোটি টাকা।

এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে আরও অনেক অভিযোগে ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তাদের কোন হিসাব থেকে কোন হিসাবে অর্থ লেনদেন হয়েছে, অবৈধ কিছু ঘটেছে কিনা তা তদন্ত করতেই এই তলব করা হয়েছে বলে এনবিআর সূত্রে জানা গেছে।

এই সম্পর্কে জানতে চাইলে বিএফআইইউর প্রধান মোহা. রাজী হাসান চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, এটা চলমান বিষয়। এই সংক্রান্ত কোনো খবরা-খবর পেলে আমাদের একটা টিম আছে। যারা তা তদারকি করেন। সেই ধারাবাহিকতায় গেন্ডারিয়ার যে ২ জনের নাম নতুন করে শোনা যাচ্ছে সেগুলোও তদারকির আওতায় থাকবে।

এছাড়াও এনবিআরের নিজস্ব একটা ক্ষমতা রয়েছে। তারা তা প্রয়োগ করতে পারে বলে জানান তিনি।

এর আগে যুবলীগ নেতা জি কে শামীম ও খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয়েছে।

আর সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন ও ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটসহ আরো ১০ জনের ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়েছে সোমবার।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, জব্দ করা হিসাবগুলো সাধারণত ৭ মাস পর্যন্ত বিএফআইইউ স্তগিত করে রাখে। তারপর এই বিষয়ে কোনো প্রয়োজন না হলে হিসাব পুনরায় সচল করে দেয়া হয়।

Bellow Post-Green View