চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এতিম শিশুকে সঙ্গে নিয়ে ট্রাম্পের এ কেমন অভিব্যক্তি!

যুক্তরাষ্ট্রের এল পাসোতে গুলিতে বাবা-মা হারানো ছোট এক শিশুর সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হাসিমুখের ছবি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে। শিশুটিকে নিয়ে ছবি তোলার সময় হাসিমুখে ট্রাম্পকে ‘থামস-আপ’ করতে দেখা যায়।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায়, গত রোববার এল পাসোতে গুলির ঘটনায় প্রাণ হারান ২২ জন। তাদের মধ্যে রয়েছেন দুই মাস বয়সী পলের পালক বাবা-মা। ওই ঘটনায় বেঁচে ফেরা পলকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিজ্ঞাপন

পলকে দেখতে হাসপাতালে যান ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। হাসপাতালে শিশুটির সঙ্গে ট্রাম্প দম্পতির একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যায় মেলানিয়ার কোলে দুই বছরের পল।

এসময় হাস্যোজ্জল অবস্থায় দেখা যায় ট্রাম্প দম্পতিকে। এক পর্যায়ে থামস আপ করেন ট্রাম্প। তাদের সঙ্গে থাকা তাদের সঙ্গে থাকা কমান্ডার-ইন-চিফকেও হাসিমুখে দেখা যায়।

বিজ্ঞাপন

এই ছবি নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছেন ট্রাম্প। এমনিতেই এ ঘটনায় আহতদের দেখতে বৃহস্পতিবার ট্রাম্পের হাসাপতালে যাওয়া নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে। তারওপর নতুন করে এতিম শিশুকে নিয়ে এ ধরনের ছবি নতুন করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।

চিকিৎসকরা জানান, হাসপাতালে ট্রাম্পের মধ্যে সহমর্মিতার অভাব ছিল। এসময় তিনি মেডিকেল স্টাফদের সঙ্গে ছবি তোলায় ব্যস্ত ছিলেন। ঘটনাস্থলে আয়োজন করা ট্রাম্পের র‌্যালির আকার নিয়েও হচ্ছে সমালোচনা।

এ ঘটনায় ট্রাম্প গণমাধ্যমের সামনে শোক প্রকাশ করে কোন কথা বলেননি। কিন্তু ব্যাপকভাবে প্রচারণামূলক মার্জিত ভিডিও দিয়েছেন। এই ভিডিওতেও তাকে অনেকবার থামস আপ করতে দেখা যায়। এছাড়া তার সঙ্গে মেডিকেল স্টাফদের সেলফি তোলার ভীড়ও উল্লেখযোগ্যভাবে চোখে পড়ে।

তবে ছোট শিশু পলের পরিবার ট্রাম্পের পক্ষেই কথা বলেছেন। পলের চাচা বলেন,  লোকজন ট্রাম্পের অভিব্যক্তির ভুল ব্যাখা করছেন। আমার ভাই ট্রাম্পের সমর্থক ছিলেন। ট্রাম্প হাসপাতালে গিয়ে সহমর্মিতা জানানোয় তারা খুশি বলে জানান।

Bellow Post-Green View