চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এডিস মশা নির্মূলে সিটি কর্পোরেশনের ‘চিরুনি অভিযান’

এডিস মশা নির্মূলের লক্ষ্যে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) রোববার (২৫ আগস্ট) থেকে ১০দিন ব্যাপী এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংসকরণ ও বিশেষ পরিচ্ছন্নতা  ‘চিরুনি অভিযান’ শুরু করবে।

রোববার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত  সকল ওয়ার্ডে এ ‘চিরুনি অভিযান’ পরিচালিত হবে।

বিজ্ঞাপন

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন মঞ্জুর হোসেন চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, গত ২০ আগস্ট আমরা পরীক্ষামূলকভাবে  ১৯ নং ওয়ার্ডে ‘চিরুনি অভিযান‘ শুরু করেছিলাম।  রোববার থেকে আমাদের ৩৬টি ওয়ার্ডেই দশদিন ব্যাপী এ অভিযান শুরু হবে।  পরে সম্প্রসারিত এলাকার ওয়ার্ডসমূহেও ‘চিরুনি অভিযান’ পরিচালিত হবে।

তিনি বলেন, অভিযানে ওয়ার্ড কাউন্সিলরগণ ‘চিরুনি অভিযান’ এর সার্বিক তত্ত্বাবধান করবেন। এছাড়াও মশক কর্মী, স্প্রে ম্যান, স্কাউট  এ অভিযানে যুক্ত থাকবে।  এছাড়াও এডিস মশা নির্মূলে সম্প্রসারিত ওয়ার্ডগুলোতেও (ওয়ার্ড ৩৭-৫৪) আমাদের ডেঙ্গু প্রতিরোধ সেল কাজ করছে।

বিজ্ঞাপন

এরআগে গত বৃহস্পতিবার ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) ৫টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। এ সময় ১১৩নং সড়কে একটি নির্মাণাধীন ভবনে এবং ‘হাশেম ইলেকট্রিক’ নামক একটি প্রতিষ্ঠানের ছাদে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা করে মোট ২ লাখ টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া ১১৫নং সড়কে ‘হারমোনি হোল্ডিংস’ এর ছাদে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) জনসংযোগ কর্মকর্তা এ এস এম মামুন চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, বৃহস্পতিবার ২৬১টি বাড়ি পরিদর্শন করে ১৮টি বাড়িতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়। এ বাড়িগুলোর সামনে “সাবধান, এ বাড়িতে/প্রতিষ্ঠানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গিয়াছে” লেখা স্টিকার লাগানো হয়।  গত ২০ আগস্ট থেকে ২২ আগস্ট পর্যন্ত ১৯নং ওয়ার্ডের (গুলাশান-বনানী) মোট ৬৫৮টি বাড়ি পরিদর্শন করে ৫৬টি বাড়িতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়।

এছাড়াও এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় বারিধারা জে ব্লকে ‘গালফ অটো কারস লিমিটেড’ এর মালিককে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সগীর হোসেন ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

মিরপুরের টোলারবাগে পরিত্যক্ত টায়ারে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ১টি দোকানের মালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সালেহা বিনতে সিরাজ।

ভাষানটেকে ৪টি দোকানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম শফিউল আজম প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

Bellow Post-Green View