চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এখনই বাতিল হচ্ছে না জঙ্গি শামীমার নাগরিকত্ব

আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠি ইসলামিক স্টেটে যোগ দেওয়া শামীমা বেগমের বিরুদ্ধে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব অপসারণের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনী সহয়তা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ডেইলি মেইল।

তবে এই সিদ্ধান্তের পর ব্রিটিশ পার্লামেন্টে সাংসদ সদস্য, আইনজীবীরা শামীমা বেগমের নাগরিকত্ব বাতিল না হওয়ার বিষয়টিকে হাস্যকর এবং ঘৃণার যোগ্যের শামিল হিসেবে দেখছেন।

বিজ্ঞাপন

তবে এর পরিপ্রেক্ষিতে, স্বরাষ্ট্র সচিব সাজিদ জাবেদ বলেছেন, ১৯ বছর বয়সী শামীমার সাথে যা ঘটেছে তা খুব দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন।

বিজ্ঞাপন

গত রাতে লিগ্যাল এইড এজেন্সি (এলএএ) সিদ্ধান্তে বলা হয়েছে-  শামীমা বেগমের বিরুদ্ধে আত্নঘাতী বোমা হামলাকারীদের জন্য বিস্ফোরক ভেস্ট সেলাই করে দেওয়ার অভিযোগ আছে, এবং  সে কালাসনিকভ রাইফেল বহন করত বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

২০১৫ সালে মাত্র ১৫ বছর বয়সে শামীমা বেগম জঙ্গি সংগঠন আইএসের সঙ্গে জীবন কাটাতে আরও দুই বন্ধুর সঙ্গে সিরিয়ার উদ্দেশে যুক্তরাজ্য ছেড়ে চলে যান। তাকে সিরিয়ার এক শরণার্থী শিবিরে পাওয়া যায়।

সিরিয়ায় তিনি এক আইএস যোদ্ধাকে বিয়ে করেন এবং তিনটি সন্তানের জন্ম দেন। তার মধ্যে দুটি শিশু জন্মের পরই মারা যায়। তবে তার তৃতীয় ছেলেটি ও মারা যায়।