চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এক ধনকুবেরের সৌজন্যে বিনা খরচে চাঁদে যাওয়ার সুযোগ

৮ জন পর্যটক নিতে চান উসাকু মাইজাওয়া

বিশ্বের প্রথম পর্যটক হিসেবে চাঁদ ভ্রমণে যাচ্ছেন জাপানি ধনকুবের ইউসাকু মাইজাওয়া- এই সংবাদ এখন আর নতুন নয়। তবে সফর সঙ্গী চেয়ে তিনি আরেক নতুনের জন্ম দিয়েছেন। নিজের ভ্রমণে সাথে নিতে চান আরও ৮ ব্যক্তিকে। যাদের পুরো খরচই বহন করবেন মাইজাওয়া নিজেই।

২০২৩ সালে চাঁদে ভ্রমণের জন্য এরই মধ্যে রকেট বুকিং দিয়েছেন ইউসাকু মাইজাওয়া। এই মিশনের নামকরণ করা হয়েছে ‘ডিয়ারমুন’।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেছেন, আমি চাই সব ব্যাকগ্রাউন্ডের লোক আমার সঙ্গে যুক্ত হোক।

আগ্রহীদের রেজিস্ট্রেশনের জন্য একটি লিংকও শেয়ার করে https://dearmoon.earth মাইজাওয়া বলেন, ‘এ ভ্রমণে কাউকে এক পয়সাও গুনতে হবে না। সমস্ত খরচ তিনি নিজেই বহন করবেন। আমি সমস্ত আসন কিনে নিয়েছি। এটি সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত ভ্রমণ হবে।’

তবে এ জন্য আবেদনকারীর জন্য কিছু শর্ত জুড়ে দিয়েছেন তিনি। শর্তগুলো যদিও তেমন কঠিন কিছু নয়। যেমন- আগ্রহীদের শক্ত মনোবল, প্রবল আগ্রহ-উৎসাহ এবং আন্তরিকতা থাকতে হবে। বিশ্বের শান্তিকামী মানুষ হতে হবে।

বিজ্ঞাপন

হতে হবে মানুষের কল্যাণকামী, সমাজের কোনো না কোনো ক্ষেত্রে অবদানকারী, পারস্পরিক সহযোগিতায় আগ্রহী, উদার এবং ভ্রমণের সময় অন্যদের আসন গ্রহণের সুযোগদানের মনোভাব। সেই সঙ্গে তাদেরকে হতে হবে শিল্পানুরাগী।

মাইজাওয়ার মতে, ‘আপনি যদি মনে করেন আপনার মধ্যে শিল্পসত্তা আছে, তবে আপনি একজন শিল্পী’।

এর আগে ইউসাকু মাইজাওয়া তার সঙ্গে চাঁদে ভ্রমণে যাওয়ার জন্য একজন ভালোবাসার মানুষের খোঁজে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছিলেন। তবে শেষে সে ভ্রমণ সম্পন্ন করা যায়নি। হয়তো তিনি যোগ্য ভালোবাসার মানুষ খুঁজে পাননি।

জাপানে অনলাইন ফ্যাশন রিটেইলার হিসেবে শীর্ষস্থান দখল করেছে জজো। ফোর্বসের হিসাব অনুযায়ী, দেশটির ১৮তম ধনী ব্যক্তি মাইজাওয়া। বর্তমানে তার মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় ২৯০ কোটি ডলার।

৪৪ বছর বয়সী এই শতকোটিপতি নিজের ফ্যাশন রিটেইলার ‘জজো’ সফটব্যাংকের কাছে বিক্রি করে দিয়েছিলেন।